চলে গেলেন বব উইলিস

বব উইলিস

ইংল্যান্ডের সাবেক পেসার ও অধিনায়ক বব উইলিস বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ১৯৮১ সালে ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ জয়ের নায়ক এই ক্রিকেটারের মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। পরিবারের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে খবরটি নিশ্চিত করা হয়।

১৯৭১ সালে অভিষেকের পর এক যুগের বেশি সময়ের ক্যারিয়ারে উইলিস খেলেন ৯০ টেস্ট ও ৬৪ ওয়ানডে ম্যাচ। শিকার করেন যথাক্রমে ৩২৫ ও ৮০ উইকেট। টেস্টে তার ৩২৫ উইকেট এখনো পর্যন্ত ইংলিশদের চতুর্থ সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের রেকর্ড। তার চেয়ে বেশি উইকেট পেয়েছেন কেবল জেমস অ্যান্ডারসন, স্টুয়ার্ট ব্রড ও ইয়ান বোথাম।

‘প্রিয় বব উইলিসকে হারিয়ে আমরা ব্যথিত। সে ছিল একজন অসাধারণ বাবা, স্বামী, ভাই ও দাদা। তার পরিচিত সকলের মধ্যেই সে ইতিবাচক প্রভাব বিস্তার করেছিল এবং সবাই তাকে অনেক মিস করবে।’ স্কাই স্পোর্টসের মাধ্যমে পরিবার থেকে দেওয়া বিবৃতিতে এমনটাই বলা হয়।

১৯৭৫ সাল থেকে ব্যথা পাওয়া বব দুই হাঁটুতেই অস্ত্রোপচারের কারণে ৩২৫ উইকেট নিয়েই ইতি টানেন টেস্ট ক্যারিয়ারের। অবসরের পর ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করেন ব্রডকাস্টারের সাথে, শুরুতে বিবিসিতে থাকলেও পরে যোগ দেন স্কাই স্পোর্টসের সাথে।

১৯৮১ সালের অ্যাশেজে তার পারফরম্যান্স ছিল বেশ দুর্দান্ত। বিশেষ করে হেডিংলির তৃতীয় টেস্টে ৪৩ রান খরচায় বব উইলিসের ৮ উইকেটের পাশাপাশি বোথামের ম্যাচ বাঁচানো ইনিংসের কথা ইংলিশরা মনে রাখবে আরও বহুদিন। লম্বা রান আপের জন্য ছিলেন বেশ পরিচিত, গতবছর ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের সর্বকালের সেরা টেস্ট একাদশেও জায়গা পান উইলিস।

ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেন ১৮ টেস্ট ও ২৯ টি ওয়ানডেতে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে ইংলিশ বোর্ড থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ‘তার মত একজন কিংবদন্তিকে হারানো অনেক কষ্টের। তিনি ক্রিকেটের জন্য যা করেছেন তা চিরকালই স্মরণীয় হয়ে থাকবে। ক্রিকেট একজন পরম বন্ধুকে হারালো।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ

Read Next

জোড়া সেঞ্চুরিতে বাঘিনীদের ২৫০ পার

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।