ক্রিকইনফোর চোখে ভবিষ্যতের সেরা ২০ নারী ক্রিকেটার

ক্রিকইনফোর চোখে ভবিষ্যতের সেরা ২০ নারী ক্রিকেটার

গত দশকে নারীদের ক্রিকেট ছিল রমরমা, খেলা হয়েছিল ১২৩৭ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ। তার আগের দশকের (৪৮৬) চেয়ে প্রায় তিন গুণ। গত দশকে ১৪৫৫ জন নারী ক্রিকেটারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়, তার আগের দশকে যা ছিল কেবল ৬৬২।

নারীদের ক্রিকেটে ম্যাচ বাড়ছে, বাড়ছে অংশগ্রহণ। এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে টুর্নামেন্ট, তাতে প্রাইজমানির পরিমাণ। সেরা ৯ আন্তর্জাতিক নারী দল তাদের ক্রিকেটারদের এনেছে কেন্দ্রীয় চুক্তির আওতায়।

পুরুষ ক্রিকেটারদের ন্যায় এখন নারী ক্রিকেটাররাও বৈশ্বিক তারকা। এলিস পেরি, মেগ লেনিং, অ্যালিসা হিলি, সানা মির, হারমানপ্রীত কর, সুজি বেটস, সোফি ডিভাইন, জাহানারা আলমরা এখন বৈশ্বিক তারকা।

নতুন দশক শুরু হয়েছে, এই দশক কারা মাতাবেন ব্যাটে-বলে? এমন এক প্রতিবেদন করেছে ক্রিকইনফো (দ্য ক্রিকেট মান্থলি)। যেখানে ভবিষ্যতের সেরা ২০ তারকা বেছে নিয়েছেন নারীদের ক্রিকেটের ক্রিকেটার, কোচ, ধারাভাষ্যকাররা।

সানা মির, সুজি বেটস, মেরিসা আগুইলেরিয়া, শশীকলা সিরিবর্ধনে, লরা মার্শ, রিমা মালহোত্রা, লিয়া পোল্টন, দীনেশা দেভনারায়ন, সিডনি থান্ডার্স কোচ ট্রেভর গ্রিফিন, সিডনি সিক্সার্স হেড কোচ বেন সওয়ার ছিলেন জুরিতে। ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ এ যারা অনূর্ধ্ব-২২ তারাই বিবেচনা যোগ্যা হয়েছেন।

বাংলাদেশ নারী দলের ২১ বছর বয়সী মুর্শিদা খাতুন আছেন এই তালিকায়। মুর্শিদা খাতুন সম্পর্কে প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে-

বাংলাদেশ নারী দলের একমাত্র বাঁহাতি ব্যাটার, খুলনার মেয়ে তার ডাকনাম হ্যাপি। বাংলাদেশ পুরুষ দলের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবালকে দেখে খেলার প্রেমে পড়েন। ভারতের স্মৃতি মান্দানার ব্যাটিংয়ের মত নিজের ব্যাটিং করতে চান তিনি। মান্দানার মতই দারুণ কাভার ড্রাইভ খেলা মুর্শিদার শটের জোন অফ সাইডে বেশি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার ২৬ বলে ৩০ রানের ইনিংস বুঝিয়ে দিয়েছিল সে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের টপ অর্ডারকে দারুণ কিছু উপহার দিবে।

মুর্শিদার ‘হিরো’:

‘আমার মা, হাওয়া খাতুন। আমি আমার জীবনে যে সমর্থন পেয়েছি তার সবচেয়ে শক্তিশালী স্তম্ভ তিনি। আমি যখন ভালো অনুভব করিনা তখন আমি মায়ের সাথে সময় কাটাই। সেটা ১০ মিনিটের জন্য হলেও আমি তার সাথে থাকার পর ভালো অনুভব করি। আমার ক্রিকেটকে ক্যারিয়ার হিসাবে নেওয়ার পেছনে তার অবদান অনস্বীকার্য।’

মুর্শিদার সবচেয়ে বড় অ্যাম্বিশন:

‘আমি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ে সেরা দশে থাকতে চাই। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান করতে চাই।’

মুর্শিদার সেরা ম্যাচ:

‘২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় আমার অভিষেক পরিকল্পনা মত হয়নি। আমি বেশি রান করতে পারিনি। দেশে ফেরার পথে এক নির্বাচকের কাছে শুনি যে আমাকে বিশে=রাম দেওয়া হবে পরবর্তী সিরিজে এবং আমি ন্যাশনাল ক্যাম্পে থাকবো না। সেটা আমার জন্য কঠিন সময় ছিল। আমি সিদ্ধান্ত নিই পরিশ্রম করে আবার ফিরবো। পরবর্তীতে আমি বাংলাদেশের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করি ইমার্জিং সিরিজে। ৪০ এর মত রান (৪৮) করি যা টার্নিং পয়েন্ট ছিল। সেটার ওপর ভিত্তি করেই আমি আবার জাতীয় দলে ডাক পাই।’

মুর্শিদা সম্পর্কে বিশেষজ্ঞ মতামত (জাহানারা আলম):

‘বাংলাদেশ দলে হ্যাপি অন্যতম সেরা ফিট প্লেয়ার। একজন ক্রিকেটারের এত অল্প বয়সে ফিটনেসের ওপর এত গুরুত্ব দেওয়া বুঝিয়ে দেয় সে বিশ্বের সেরাদের একজন হতে চায়। ওপেনার হিসাবে তার বাঁহাতি হওয়া একটা বাড়তি অ্যাডভান্টেজ। তার ভুল খোঁজা ও সেটা নিয়ে কাজ করা তাকে আলাদা করে অন্যদের থেকে। সে খুবই জানতে আগ্রহী ও ভালো করার জন্য ক্ষুধার্ত থাকে। যদি সে তার এই ওয়ার্ক এথিক বজায় রাখে আমি বিশ্বাস করি সে বাংলাদেশকে ওপেনার হিসাবে লম্বা সময় সার্ভিস দিবে।’

ক্রিকইনফোর চোখে ভবিষ্যতের সেরা ২০ নারী ক্রিকেটার-

শেফালী ভার্মা (ভারত, ওপেনার), সোফি মলিনেক্স (অস্ট্রেলিয়া, অল রাউন্ডার), লরা উলভার্ট (দক্ষিণ আফ্রিকা, টপ অর্ডার ব্যাটার), সোফি একলেস্টোন (ইংল্যান্ড, বাঁহাতি অর্থোডক্স স্পিনার), ইসি ওং (ইংল্যান্ড, ফাস্ট বোলার), শাবিকা গজনবী (ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অলরাউন্ডার), আমিলা কের (নিউজিল্যান্ড, অলরাউন্ডার), জেমিমা রড্রিগুয়েজ (ভারত, ব্যাটার), তায়লা ভ্লামেনিক (অস্ট্রেলিয়া, ফাস্ট বোলার), সারা গ্লেন (ইংল্যান্ড, লেগস্পিনার), নাদিন ডি ক্লার্ক (দক্ষিণ আফ্রিকা, অলরাউন্ডার), রাধা যাদব (ভারত, বাঁহাতি স্পিনার), ওমাইমা সোহেল (পাকিস্তান, ব্যাটার), জর্জিয়া ওয়ারেহাম (অস্ট্রেলিয়া, লেগস্পিনার), শেনেতা গ্রিমন্ড (ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অলরাউন্ডার), মুর্শিদা খাতুন (বাংলাদেশ, ওপেনার), ফোবে লিচফিল্ড (অস্ট্রেলিয়া, ব্যাটার), রিচা ঘোষ (ভারত, ব্যাটার), কাভিশা দিলহারি (শ্রীলঙ্কা, অলরাউন্ডার) ও অ্যানাবেল সাদারল্যান্ড (অস্ট্রেলিয়া, অলরাউন্ডার)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে ৩ বিদেশি ধারাভাষ্যকার

Read Next

যা নিজের হাতে আছে সেটাতেই মনযোগ দিচ্ছেন ইরফান

Total
3
Share
error: Content is protected !!