ওয়ার্নারকে অভিনন্দন জানাতে প্রস্তুত হচ্ছিলেন লারা!

ব্রায়ান লারা

গ্যারি সোবার্সের ৩৬৫* রানের রেকর্ড ভেঙে ৩৭৫ রান করেছিলেন ব্রায়ান চার্লস লারা। লারাকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন গ্যারি সোবার্স নিজেই। এমনটিই করার জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন ব্রায়ান লারা। ভেবেছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার টপকে যাবে তার ৪০০ রানের রেকর্ড। মাঠে যেয়ে অভিনন্দন বার্তা পৌঁছে দেবার জন্য প্রস্তুত ছিলেন তিনি।

ব্যাটিংয়ের বরপুত্র ব্রায়ান চার্লস লারা বলেন ‘আমি আশা করেছিলাম সে (ডেভিড ওয়ার্নার) আমাকে ধরে ফেলবে, আমাকে টপকে যাবে। যে কারণে আশা করেছিলাম যে তারা (টিম ম্যানেজমেন্ট) তাকে সেই সুযোগ টা দেবে।’

‘এটা দারুণ হতো যদি আমি সেখানে যেতে পারতাম। রেকর্ড ভাঙার জন্যই তৈরি হয়। এটা দারুণ ব্যাপার হয় যখন অ্যাটাকিং প্লেয়ার, এন্টারটেইনার রা রেকর্ড ভাঙে। যেহেতু আমি অ্যাডিলেডেই ছিলাম আমি কোন সুবিধাজনক সময়ে তার সাথে দেখা করতে পারতাম।’

এবার হয়নি, তবে লারা মানেন এখনো সুযোগ আছে ওয়ার্নারের- ‘আমি এখনো মনে করি ওয়ার্নারের ক্যারিয়ারে এই রেকর্ড ভাঙার জন্য সময় আছে। যখন তুমি ৩০০ করতে জানো, তুমি সেটাকে ৪০০ তে রূপ দিতেও জানো।’

বিজ্ঞাপন শ্যুটিংয়ের জন্য অ্যাডিলেডেই অবস্থান করছিলেন লারা। শুনছিলেন ম্যাচের ধারাভাষ্য। লারার মতে রেকর্ড ভাঙতে দল ওয়ার্নারকে আরেকটু সময় দিতে পারতো।

‘স্যার ডন ব্র্যাডম্যানকে যখন সে টপকে গেলো আমি খুশি হতা, তাঁকে আমার দিকে এগিয়ে আসতে। ইনিংস শেষ হবার দিকে ফিরে আসতে আমি সাজগোজ করছিলাম। আমি কমেন্ট্রি শুনছিলাম। কমেন্টেটররা বলছিল সে ম্যাথু হেইডেনের ৩৮০ টপকানোর জন্য যাবে কিনা। আমি ভেবেছিলাম, যদি সে ৩৮১ করতে পারে তাহলে সে ৪০০ ও করে ফেলতে পারে।’

‘এটা দারুণ এক ইনিংস ছিল। আমি দেখতে পারছি ম্যাচ জেতা অস্ট্রেলিয়ার জন্য মুখ্য উদ্দেশ্য ছিল এবং আবহাওয়াটা বড় ফ্যাক্টর ছিল। কিন্তু আমি খুবই খুশি হতাম যদি অস্ট্রেলিয়া ওয়ার্নারকে আরেকটু সময় দিত। যদি তারা বলতো, ‘হেই ডেভিড, তোমার কাছে ১২ ওভার আছে, দেখো চা বিরতির আগে তুমি এটা করতে পারো কিনা’ তাহলেও ব্যাপারটা দারুণ হতো।’

শিহাব আহসান খান

Read Previous

মহাত্মা গান্ধীর উক্তি ব্যবহার করে স্বামীকে প্রশংসা করলেন ক্যান্ডিস

Read Next

জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেল মিরপুরে

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।