‘৩’ দফা জীবন, অতঃপর হার না মানা সেঞ্চুরি

'৩' দফা জীবন, অতঃপর হার না মানা সেঞ্চুরি

টান টান উত্তেজনার ম্যাচে শিখর ধাওয়ানের অভিষেক টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরিতে ভর করে চেন্নাই সুপার কিংসকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। আক্সার প্যাটেলের শেষের ক্যামিওতে দারুণ এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ফিরে পেয়েছে শ্রেয়াস আইয়ারের দল।

১৮০ রানের লক্ষ্য তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি দিল্লি ক্যাপিটালসের। দিপক চাহারের জোড়া আঘাতে ২৬ রানেই ফিরে যান ওপেনার পৃথ্বী শ্ব (০) ও তিন নম্বরে নামা আজিঙ্কা রাহানে (৮)। এরপর অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে ৬৮ রানের জুটিতে বিপর্যয় কাটান শিখর ধাওয়ান। ২৩ বলে ২৩ রান করে ডোয়াইন ব্রাভোর বলে ফাফ ডু প্লেসিসের হাতে আইয়ার ধরা পড়লে ভাঙে জুটি।

অধিনায়কের বিদায়ের পর মার্কাস স্টয়নিস (২৪) ও আক্সার প্যাটেলকে (২১) নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন শিখর ধাওয়ান। যে পথে তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি। ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে অবদান আছে চেন্নাই সুপার কিংস ফিল্ডারদেরও। তার ব্যক্তিগত ২৫, ৫০ ও ৭৮ রানের সময় ক্যাচ মিস করে দিপক চাহার, মাহেন্দ্র সিং ধোনি ও আম্বাতি রাইডু।

জীবন পেয়ে বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ৫৮ বলে ১৪ চার ১ ছক্কায় অপরাজিত ছিলেন ১০১ রানে। ফলে টানা তিন ম্যাচেই পঞ্চাশোর্ধ ইনিংসের দেখা পেলেন ধাওয়ান। শেষ দুই ওভারে প্রয়োজন ছিল ২১ রান তবে ১৯তম ওভারে স্যাম কারেন মাত্র ৪ রান খরচ করেন।

 

View this post on Instagram

 

Maiden T20 hundred for Shikhar Dhawan #DCvCSK #Dream11IPL #IPL2020

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

শেষ ৬ বলে সমীকরণ দাঁড়ায় ৬ বলে ১৭। যা ক্রিজে আসা নতুন ব্যাটসম্যান আক্সার প্যাটেল তিন ছক্কায় ১ বল হাতে রেখেই তুলে ফেলেন। চোটে পড়ায় শেষ ওভারে ডোয়াইন ব্রাভোর পরিবর্তে রবীন্দ্র জাদেজাকে ব্যবহার করতে বাধ্য হন অধিনায়ক ধোনি।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামা চেন্নাই সুপার কিংসের অনিয়মিত ওপেনার স্যাম কারেন কোন রান না করেই ফিরে যান। তবে ফাফ ডু প্লেসিসের ফিফটির সাথে শেন ওয়াটসন, আম্বাতি রাইডু ও রবীন্দ্র জাদেজার কার্যকরী কিছু ইনিংসে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রানের সংগ্রহ পায় চেন্নাই সুপার কিংস।

৪৭ বলে ৬ চার ২ ছক্কায় ৫৮ রান আসে ডু প্লেসিসের ব্যাট থেকে। তাকে ফিরিয়ে দিল্লি পেসার রাবাদা সবচেয়ে কম ম্যাচ (২৭) খেলে আইপিএলে ৫০ উইকেট শিকারের রেকর্ড গড়েন। ২৮ বলে ওয়াটসনের ব্যাট থেকে আসে ৬ চারের সাহায্যে ৩৬ রান। যেখানে ২৫ বলে ১ চার ৪ ছক্কায় ৪৫ রানে আম্বাতি রাইডু ও ১৩ বলে ৪ ছক্কায় ৩৩ রানে অপরাজিত ছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা।

সমান জয় নিয়ে রান রেটে এগিয়ে থেকে আগেরদিন পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে ওঠা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে আবারও দুইয়ে নামিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। চেন্নাই সুপার কিংসকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ৯ ম্যাচে ৭ জয়ে টেবিলের চূড়ায় শ্রেয়াস আইয়ারের দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

চেন্নাই সুপার কিংস ১৭৯/৪ (২০ ওভার), কারেন ০, ডু প্লেসিস ৫৮, ওয়াটসন ৩৬, রাইডু ৪৫*, ধোনি ৩, জাদেজা ৩৩*; তুষার ৪-০-৩৯-১, রাবাদা ৪-১-৩৩-১, আক্সার ৪-০-২৩-০, নরকিয়া ৪-০-৪৪-২, অশ্বিন ৩-০-৩০-০, স্টয়নিস ১-০১০-০।

দিল্লি ক্যাপিটালস ১৮৫/৫ (১৯.৫ ওভার), পৃথ্বী ০, ধাওয়ান ১০১*, রাহানে ৮, আইয়ার ২৩, স্টয়নিস ২৪, ক্যারি ৪, আক্সার ২১*; দিপক ৪-১-১৮-২, কারেন ৪-০-৩৫-১, ৪-০-৩৯-১, জাদেজা ১.৫-০-৩৫-০, শর্মা ৩-০-৩৪-০, ব্রাভো ৩-০-২৩-১।

ফলঃ দিল্লি ক্যাপিটালস ১ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ শিখর ধাওয়ান (দিল্লি ক্যাপিটালস)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ডি ভিলিয়ার্সের অতিমানবীয় ইনিংসে ব্যাঙ্গালোরের জয়

Read Next

আইপিএলের ড্রেসিংরুমে ‘ভেপ’ টেনেছেন ফিঞ্চ (ভিডিও)

Total
4
Share
error: Content is protected !!