‘ভারতকে এতবার হারিয়েছি যে ওরা ম্যাচ শেষে ক্ষমা চাইত’

শহীদ আফ্রিদি শচীন টেন্ডুলকার

ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথ মানেই ভক্ত-সমর্থকদের কাছে বাড়তি রোমাঞ্চ, উত্তেজনা। তবে দুই দেশের রাজনৈতিক সংকটের প্রভাব পড়েছে ক্রিকেটেও। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বিবর্তনের আগে টেস্ট, ওয়ানডেতে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে পাকিস্তান। তবে দেশটির তারকা ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদির অভিষেকের পর থেকে অনেকটা সমানে সমানে লড়েছে দুই দল। জয়-পরাজয়ের ব্যবধানে খুব বেশি ফারাক ছিলনা। কিন্তু আফ্রিদির দাবি একটা সময় ভারতকে এত বেশি হারিয়েছেন যে ম্যাচ শেষে ভারতীয় ক্রিকেটাররা ক্ষমা চাইতো।

২০১২-১৩ মৌসুমের পর বন্ধ হয়ে যায় দুই দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। কালে ভদ্রে দেখা মেলে আইসিসি ইভেন্ট বা এশিয়া কাপে। এখনো পর্যন্ত দুই দলের মুখোমুখি ১৩২ ওয়ানডেতে পাকিস্তানের ৭৩ জয়ের বিপরীতে ভারতের ৫৫ জয়। ৫৯ টেস্টে পাকিস্তানের ১২ জয়ের বিপরীতে ভারতের জয় ৯ টি। টি-টোয়েন্টিতে আধিপত্য অবশ্য ভারতের, ৮ বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে ভারতের ৭ জয়ের বিপরীতে পাকিস্তানের মাত্র একটি।

সামগ্রিক পরিসংখ্যান পাকিস্তানের পক্ষে থাকলেও শহীদ আফ্রিদির অভিষেক থেকে অবসর সময় কালে দুই দলের পরিসংখ্যানে খুব বেশি পার্থক্য ছিলনা। অথচ সদ্য করোনা মুক্ত হওয়া আফ্রিদি একটি ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন ভারতের বিপক্ষে এত বেশি ম্যাচ জিতেছে যে ক্ষমা চাইতো ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

পাকিস্তানি অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমি ভারতের বিপক্ষে সবসময় উপভোগ করি। আমরা ওদের বেশ ভালোভাবে হারিয়েছি। আমি বিশ্বাস করি আমরা তাদের এত হারিয়েছি যে তারা ম্যাচ শেষে আমাদের কাছে ক্ষমা চাইতে অভ্যস্ত ছিল। ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলতে আমি সবসময় উপভোগ করি। তাদের বিপক্ষে খেলাটা অনেক চাপের। তারা অনেক বড় দল, ভালো দল। তাদের কন্ডিশনে গিয়ে খেলা ও ভালো করা সত্যি অন্যরকম কিছু।’

উল্লেখ্য, পরিসংখ্যান মতে তার অভিষেকের পর থেকে তিন ফরম্যাটে ভারতের বিপক্ষে ১০৫ ম্যাচে মুখোমুখি হয় ভারত। যেখানে ভারতের ৫১ জয়ের বিপরীতে পাকিস্তানের জয় ৪৭ টিতে। ড্র হয়েছে ৫ টি ম্যাচ, কোন ফল আসেনি দুই ম্যাচে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

উইজডেনের স্বীকৃতি পেয়ে অভিভূত সাকিব, মুশফিকের অভিনন্দন বার্তা

Read Next

জীবন একটুও বদলায়নি প্যাট কামিন্সের

Total
2
Share
error: Content is protected !!