বিশ্বাসে মিলায় বস্তু- প্রমান করলেন ভ্যান ডার ডুসেন

র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসেন

৩০ বছর বয়সী দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান ভ্যান ডার ডুসেন। ক্যারিয়ারে বেশ উত্থান পতনের মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন, অনিশ্চয়তা, শঙ্কা, আর্থিক সংকট কাটিয়ে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছাতে লেগেছে বেশ সময়। সাফল্যের এই পথে পাড়ি দিয়েছেন নানা প্রতিবন্ধকতা, টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ভারতে অবস্থানকালে নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে কথা বলেছেন জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকবাজের সাথে, তুলে ধরেছেন নিজের দৃঢ় বিশ্বাসের কথা।

র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসেন

পেশাদার ক্রিকেটে বছরের পর বছর অতিবাহিত করেও জুটছিলনা কোন দলের সাথে স্থায়ী চুক্তি। জীবন হয়ে পড়ছে রূঢ়, আর্থিক অনিশ্চয়তার দোলাচলে কাটছিল ভ্যান ডার ডুসেনের ক্রিকেট ক্যারিয়ার। নিজের প্রথম ক্লাব নর্দার্নসের হয়ে দুই বছর ধরে খেলে ফেললেও পাননি চুক্তির অফার। সে সময় টাইটানদের হয়ে খেলার স্বপ্নই কেবল ধাওয়া করছিল ডুসেনকে।

এবি ডি ভিলিয়ার্স, ফাফ ডু প্লেসিস, হেইনো কুহন, জ্যাক রুডলফ, পিটার মালানদের ভিড়ে নর্দার্নসের চুক্তিতে সুযোগ না পাওয়া ডুসেনের ক্রিকেট জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময় ছিল সেটি। ক্লাবের সাথে একটি চুক্তির জন্য তীর্থের কাকের মত তাকিয়ে থাকা, হতাশার দীর্ঘশ্বাস হৃদয়কে ভেঙে দেওয়ার উপক্রম । তার প্রেমিকা লারা ব্লিগনটকে পরিবার থেকে চাপ দেওয়া হয় যিনি বর্তমানে তার স্ত্রী । প্রশ্ন করা হয় তার প্রেমিক কি বড় কোন লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে? তার কি জীবন নিয়ে ভাবনা আছে? তবে হাল ছাড়েননি ডুসেন।

নিজের সে সময়কার কথা জানাতে গিয়ে ডুসেন বলেন, ‘আমি হাল ছেড়েছি এমন সময় কখনই ছিলনা। ওই সময়টা সত্যি বেশ হতাশাজনক ছিল তবে আমি ভেঙে পড়িনি। আমার বিশ্বাস ছিল সফলতা আসতে যাচ্ছে। ২০ বছর বয়সে আমার নর্দার্নসের সাথে চুক্তি হলে সেটা আমাকে অনেকদূর এগিয়ে নিতে পারতো। তবে এর মাধ্যমে জীবন আমায় শিখিয়েছে আমি আসলে নর্দার্নসের জন্য ছিলাম না। সেটিই আমায় নর্থ ওয়েস্ট টেনে আনে।’

নর্দার্নসের সাথে সম্পর্কের ইতি টেনে শেষে পাড়ি জমান নর্থ ওয়েস্টে , ওখানকার যাত্রাটাও খুব সুখকর ছিলনা এই ক্রিকেটারের জন্য। ২০ টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে ফেললেও দ্বিতীয় সারির দলেই জায়গা মিলতো এখানে। ২০১২ সালে স্বপ্ন ধরা দেয়, চুক্তিবদ্ধ হন লায়ন্সের সাথে। আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি একটু দেরিতে হলেও গতবছর গায়ে চাপান দক্ষিণ আফ্রিকান জার্সি। ঘরোয়া ক্রিকেটের দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা জাতীয় দলে শুরু থেকেই কাজে লাগাতে থাকেন।

গতবছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ও চলতি বছরের শুরুতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেকে। টি-টয়েন্টি অভিষেকে ৫৬ রানের পর ওয়ানডে অভিষেকেও ৯৩ রানের নান্দনিক ইনিংস। ব্যাট হাতে বুঝিয়ে দিয়েছেন অনেক পথ পাড়ি দিয়ে এখানে টিকতেই এসেছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ে বলতে গিয়ে জানান, ‘২৯ বছর বয়সে আমার অভিষেক হয়, জীবন এমনই। আমি প্রচুর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছি এবং প্রচুর পরিশ্রম করেছি অন্য অনেকের মত। তবে নিশ্চিত ছিলাম না আমার লক্ষ্য ও স্বপ্নগুলো পূরণ হবে কিনা। আমি কেবল চিন্তা করেছি এসব ভেবে নিজের সেরাটা দেওয়া থেকে সরে আস যাবেনা। আমি শুধু ঠিক করেছি আমাকে অধ্যবসায় করতে হবে, আর সুযোগ পেলে প্রমাণ করতে হবে আমি প্রস্তুত।’

মাত্র ৯ ম্যাচের অভিজ্ঞতা দিয়েই খেলেছেন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ, আন্তর্জাতিক ম্যাচের অভিজ্ঞতা কম থাকলেও বিশ্বকাপের আগে খেলা ৯ ম্যাচে ৮৮.২৫ গড়ে ৩৫৩ রান করে ব্যাট হাতেই নিজেকে প্রমাণ করেছেন । যেখানে কাপ্তান ফাফ ডু প্লেসিসের ভূমিকাও কম ছিলনা, তার পরামর্শেই বিশ্বকাপ স্কোয়াডে নাম নিশ্চিত হয় ডুসেনের। দলীয় ব্যর্থতার আড়ালে ৬২.২০ গড়ে ৩১১ রান করে আস্থার প্রতিদানও দিয়েছেন ভালোভাবে।

বিশ্বকাপে দলে জায়গা পাওয়ার ক্ষেত্রে ফাফ ডু প্লেসিসকে কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুল করেননি প্রোটিয়া এই ব্যাটসম্যান, ‘সে সবসময়ই আমার কাছে একজন নায়ক। ফাফ দক্ষিণ আফ্রিকান দলের একজন কিংবদন্তি এবং সে আমাকে বলেছে দেশের স্বার্থেই সে আমাকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। আমিও বুঝতে পারছিলাম বিশ্বকাপের বছরে আমার মত নতুন একজন দলে আসলো। একজন অধিনায়ক হিসেবে এটি একটি বিশাল সিদ্ধান্ত। সে অভিষেকের আগে আমায় বলেছে নামো আর খেলতে থাকো। এখানে কাউকে প্রমাণের কিছু নেই তোমার। তুমি তরুণ কেউ না আবার অনেক বয়স্কওনা।’

র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসেন

দিনশেষে ডুসেন প্রমাণ করেছেন শুরুর জীবনের হাল ছেরে না দেওয়াটাই আজ তাকে বসিয়েছে সফলদের কাতারে। আর এজন্যই কি তার টুইটার বায়ো তে লিখা- ভির ডাই এন ওয়াট গ্ল, কান এলাইস। দক্ষিণ আফ্রিকান এই বাক্যের বাংলা করলে যা হয়- সবকিছুই তার জন্য সম্ভব যার বিশ্বাসের দৃঢ়তা অনেক বেশি। ডুসেনের টুইটার কাভার ফটো হিসেবে ব্যবহার করা ছবিতেও বিশ্বাস নিয়ে এই বাক্যটাই লিখা।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আঘাত পাওয়া সেই আহসান রাজা আবার…

Read Next

সংবাদমাধ্যমকে এড়াতে হঠাৎ উধাও তামিম!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।