বিশ্বকাপে পরিবার সঙ্গে রাখার অনুমতি পায়নি পাকিস্তান দল

বিশ্বকাপের মধ্যে সরফরাজ আহমেদের দলকে পরিবারের সঙ্গে থাকার অনুমতি দেয়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) তবে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে ভ্রমণ করতে পারে তাঁদের পরিবার। ক্রিকেটারদের বিশ্বকাপের প্রতি মনোযোগী রাখতেই সিদ্ধান্তটি নিয়েছে পিসিবি। পরিবারের সাহচার্যে ক্রিকেটারদের বিশ্বকাপ মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটতে পারে, এমনটাই মনে করছে পিসিবি। শুধু বিশেষ বিবেচনায় হারিস সোহেলকে বিশ্বকাপের মধ্যে পরিবারের সঙ্গ পাওয়ার অনুমতি দিয়েছে পিসিবি।

ক্রিকেটবিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট চলাকালীন খেলায় খেলোয়াড়দের মনোযোগ ধরে রাখতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিসিবি।

বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান। এ সময়ে স্ত্রী-সন্তান-পরিজন নিয়ে থাকার অনুমতি ছিল সরফরাজদের।

পিসিবির নতুন পলিসিতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে খেলোয়াড়দের স্ত্রী-সন্তানদের উপস্থিতি। তবে কেউ যদি ইংল্যান্ডে তার পরিবারের সদস্যদের রাখতে চায় সে ক্ষেত্রে ওই ক্রিকেটারকেই সকল খরচ বহন করতে হবে। সেক্ষেত্রেও শর্ত আছে পিসিবির। ক্রিকেটাররা যে হোটেলে থাকবেন সেখানে একই রুমে থাকতে পারবেন না পরিবারের কেউ।

লম্বা সফরে মানসিকভাবে শক্ত থাকার লক্ষ্যে যেখানে প্রায় সব দেশের ক্রিকেট বোর্ডই তাদের খেলোয়াড়দের অনুমতি দিয়েছে স্ত্রী-সন্তান তথা পরিবারের সদস্যের সঙ্গে নিয়ে থাকার। যাতে মানসিকভাবে তারা শক্ত থাকতে পারে ও মনোযোগের উপর বাড়তি চাপ না পরে সেখানে পিসিবি ভাবছে পরিবারের সদস্যরা সঙ্গে থাকলে মনোযোগ বিঘ্নিত হয়।

আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা। আর পরের দিন নটিংহ্যামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মিশন শুরু করবে পাকিস্তান।

97 Desk

Read Previous

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে থাকবে বিশেষ সশস্ত্র পুলিশ!

Read Next

দায়িত্ব হারানো আসগর আফগানিস্তানের অধিনায়কের অধিনায়ক!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।