বাংলাদেশকে উড়িয়ে দিয়ে সিরিজে টিকে রইলো ভারত

রোহিত শর্মা শিখর ধাওয়ান

সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে আজ (৭ নভেম্বর) দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে জিতলেই ভারতের মাটিতে বাংলাদেশ রচনা করতো এক মহাকাব্য। প্রথম ম্যাচের রেশ দ্বিতীয় ম্যাচে টেনে আনতে পারলনা মুশফিক-রিয়াদরা। ইতিহাস নয় টাইগারদের সঙ্গী হয়েছে বড়সড় হার। ঠিক যেন আগের ম্যাচের বিপরীত চিত্র, বাংলাদেশের বোলারদের নিয়ে রীতিমত ছেলেখেলা করে জিতে নেয় ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

১৫৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৯.২ ওভারেই স্কোরবোর্ডে ১০৪ রান তোলে ভারতীয় দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ান। বাংলাদেশের বোলারদের উপর দিয়ে ঝড়টা কেমন গেছে তা বোঝাতে এতটুকুই যথেষ্ট। অথচ আবহাওয়া পূর্বাভাস জানিয়েছিল আজকের ম্যাচটাই পন্ড হতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘মহা’ তে। ‘মহা’ শঙ্কা কেটেছিল সকাল সকালই, তবে রাতে রোহিত শর্মার ঝড় আটকাতে পারেনি মুস্তাফিজ, শফিউল, আল আমিনরা।

১০.৫ ওভারের জুটিতে দুই ওপেনার যোগ করেন ১১৮ রান, বিপ্লবের শিকার হয়ে ফেরার আগে শিখর ধাওয়ান করেন ২৭ বলে ৩১ রান। কিন্তু ততক্ষণে রোহিত পৌঁছে যান ৩৮ বলে ৮১ রানে, থামেন ৪৩ বলে ৬ চার ৬ ছক্কায় ৮৫ রানে। বিপ্লবের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফিরে যাওয়ায় মিস করেছেন নিজের শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরিটি। দলীয় ১২৫ রানে রোহিত বিদায় নিলে বাকি কাজ ২৬ বল হাতে রেখে অনায়েসেই সারেন শ্রেয়াস আয়ার(২৩) ও লোকেশ রাহুল(৮)।

 

View this post on Instagram

 

Aminul Islam Biplob bowled 9 dot balls tonight. #INDvBAN

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

অথচ বাংলাদেশের শুরুটাও হয়েছিল অনেকটা ভারতের মতই ৫.২ ওভারেই লিটন-নাইম স্কোরবোর্ডে যোগ করে ফেলেন ৫০ রান, ৪৪ বলে গড়েন ৬০ রানের জুটি। যুজবেন্দ্র চাহালের বলে উইকেটরক্ষক রিশাব পান্টের হাত থেকে অদ্ভুতভাবে বেঁচে গিয়েও ইনিংস লম্বা করতে পারেনি লিটন দাস। পরে ২১ বলে ২৯ রান করে ওই রিশাব পান্টেই রান আউটের শিকার হন লিটন।

লিটনের পর ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৩৬ করা আগের ম্যাচে অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাইম শেখ ওয়াশিংটন সুন্দর ফিরে গেলে ইনিংস মেরামতের দায়িত্ব নেন সৌম্য সরকার। ২০ বলে ২ চার ১ ছক্কায় ৩০ রান করে ফেরেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। সৌম্য ফিরে গেলে একাই লড়াই চালান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, কিন্তু বাকিদের ব্যর্থতায় মাত্র ১৫৩ রানেই থামতে হয় টাইগারদের। আগের ম্যাচের জয়ের নায়ক মুশফিক ফেরেন মাত্র ৪ রানে, শেষদিকে ১০ রানও করতে পারেনি আফিফ, মোসাদ্দেকরা।

রিয়াদের ব্যাট থেকে আসে ২১ বলে ৪ চারে ৩০ রান। বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ১৫৩। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট পান যুজবেন্দ্র চাহাল, একটি করে উইকেট নেন খলিল আহমেদ, ওয়াশিংটন সুন্দর, দীপক চাহার। ভারতের এই জয়ে সিরিজে এসেছে সমতা, ফলে ১০ নভেম্বর নাগপুরে শেষ টি-টোয়েন্টিতেই নির্ধারণ হবে সিরিজের ভাগ্য।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দারুণ শুরুর পরও বড় স্কোর গড়তে ব্যর্থ বাংলাদেশ

Read Next

রোহিতের প্রশংসায় গাঙ্গুলি, বিশপ, হরভজনরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।