পাকিস্তান সফর ঝুলে আছে সরকারের সবুজ সংকেতের উপর

আকরাম খান

সূচী অনুযায়ী বাংলাদেশ জাতীয় দলের আগামী বছরের শুরুতে পাকিস্তান সফর। এই নিয়ে বেশ জল ঘোলা হচ্ছে অনেকদিন ধরেই। তবে বারবার বোর্ডের তরফ থেকে বলা হচ্ছে পাকিস্তান সফর ইস্যুতে তারা তাকিয়ে আছেন সরকারের সবুজ সংকেতের। আজ (১২ অক্টোবর) মিরপুরে ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির প্রধান আকরাম খানও সাংবাদিকদের সাথে একই সুরে কথা বললেন।

দুদিন আগে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য মাহবুব আনাম জানিয়েছেন পাকিস্তান সফর মাথায় রেখেই বিপিএলের সূচী নির্ধারণ করবেন। তাহলে কি পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক অবস্থানে বোর্ড?

এমন প্রশ্নে আকরাম খান বলেন, ‘আমাদের সিইও এখন বাইরে আছেন। আর এটা নিয়ে আগেও কথা বলেছি । সরকারের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা সংস্থা যাবে, উনাদের রিপোর্টের উপর আমরা কাজটা করবো। আমাদের শিডিউল তো করা আছে, বিপিএল কখন করবো এটা কিন্তু আগেই সিদ্ধান্ত নেওয়া। তারপর আমাদের পাকিস্তান সফর আছে সেটাও ফিক্সড করা। এখানে তারিখে কোন পরিবর্তন হচ্ছেনা।’

পাকিস্তান নিজেদের দেশে খেলার জন্য বারবারই বাংলাদেশ, জিম্বাবুয়ের, শ্রীলঙ্কার মত দলগুলোকে আমন্ত্রণ জানায়। নিজেদের দেশে ক্রিকেট ফেরাতে বাংলাদেশকে নেওয়াও তাদের লক্ষ্য, বিষয়টি স্পষ্ট।

বোর্ড এ ব্যাপারটি কীভাবে দেখছে জানাতে গিয়ে আকরাম খান বলেন, ‘সেটা আমরা খুব ভালো করে বুঝতে পারি। এটা আমরা দেখেছিও, এখানে তো আসলে আমাদের কিছু করার নাই। আমরা আমাদের যেটা ভালো হবে সেটাই করবো। ওরা আসলে কি করছে না করছে সেটা আমাদের দেখারই দরকার নেই মনে করি। এটা আমাদের জন্য লাভের বিষয় না, আমরা আমাদের যেটা ভালো সেটা করবো।’

বোর্ড ক্রাইস্টচার্চের ঘটনার পর নিরাপত্তা ইস্যুতে বেশ সচেতন হয়েছে উল্লেখ করে বোর্ড পরিচালনা বিভাগের প্রধান যোগ করেন, ‘আর এখানে আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আপনারা জানেন যে আমাদের মাননীয় বোর্ড সভাপতি কিন্তু নিউজিল্যান্ডের ঘটনার পর একটা কথাই বারবার বলে আসছেন নিরাপত্তা আমাদের সবার আগে বিবেচ্য বিষয়। সুতরাং আমরা কিন্তু এটাকে বেশ গুরুত্ব দিব।’

এদিকে চলতি মাসের শেষ দিকে পাকিস্তান যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী দল, অনূর্ধ্ব-১৭ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরও নিশ্চিত। বয়সভিত্তিক ও নারীদের পাকিস্তান সফর বাংলাদেশ জাতীয় দলকে নেওয়ার ব্যাপারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে আরও বেশি উৎসাহী করারই কথা।

বোর্ড কীভাবে দেখছে বিষয়টি- ‘মেয়েদের ও বয়সভিত্তিক যে দলটা যাবে তাদের উন্নতিটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সাথে নিরাপত্তাটাও আছে। তবে জাতীয় দলের বিষয়টা সম্পূর্ণ ভিন্ন সেখানে কিন্তু নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশি থাকে। সবার দৃষ্টিটাও ওখানে থাকে, একটা জিনিস বারবার বলছি আমাদের মূল দলের সফরের ক্ষেত্রে কিন্তু সরকারের অনুমতিও লাগবে। এটার জন্য কিন্তু আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। সেখান থেকে সবুজ সংকেত পেলেই আমরা এটা নিয়ে কাজ করবো।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

জাবিদ-শহিদুলে মিরপুরে ঢাকা মেট্রোর রাজত্ব

Read Next

বোলারদের পর দাপট দেখাচ্ছেন খুলনার ব্যাটসম্যানরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।