জফরা আর্চারের কিছু টুইট, কাকতালীয় প্রেডিকশন!

চলতি বিশ্বকাপে নিজেকে অন্যতম সেরা তারকা হিসাবে ক্রিকেট বিশ্বের সাথে পরিচিত করিয়েছেন জফরা আর্চার। বারবাডোসে জন্ম নেওয়া এই গতি তারকা ১০ ম্যাচে ১৯ উইকেট নিয়ে আছেন সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকদের তালিকার তিনে। জফরা আর্চারের উইকেট নেওয়ার ক্ষমতার সাথে আছে ভবিষ্যত বলে দেবার ক্ষমতাও।

জফরা আর্চারের ২০১৩, ২০১৪, ২০১৫, ২০১৮ সালের বেশ কিছু টুইট মেলালে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড সেমিফাইনালের গতিবিধির সাথে মেলে।

আজকের ম্যাচের উইকেট দেখে অনেকেই মনে করেছিলেন এটা ব্যাটিং স্বর্গ। তবে উইকেট থেকে ভালোই সুবিধা পেয়েছেন বোলাররা।

নিজের করা প্রথম বলেই অ্যারন ফিঞ্চকে ফেরান জফরা আর্চার।

নতুন বল হাতে নিয়ে উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডকে এগিয়ে দিয়েছেন ক্রিস ওকস।

যখন ক্রিস ওকস ডেভিড ওয়ার্নারকে ফেরান তখন অস্ট্রেলিয়ার রান ছিল ১০/২।

জফরা আর্চারের বাউন্সারে আঘাত পেয়ে রক্তাক্ত হন অজি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ক্যারি।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ ৮৫ রান করেন স্টিভ স্মিথ। দারুণ কিছু শট খেলেন তিনি।

নিজের দ্বিতীয় স্পেলে এসে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের উইকেট নিয়ে অজিদের বিপদে ফেলেন জফরা আর্চার।

শিহাব আহসান খান

Read Previous

অল স্টারসকে হারিয়ে সেমিতে বাংলাদেশের সাংসদরা

Read Next

কিছু না বলেই দেশে ফিরলেন রোডস

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।