চার নয়, পাঁচ; গোলাপি নয়, লাল

বিসিএল

চলতি বিসিএলের সূচীতে পরিকল্পনার ছাপ ছিলনা একদমই। টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ড মাঠে গড়ায় ৩১ জানুয়ারি যার একটি ম্যাচ ছিল মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামেও। অথচ ১ ফেব্রুয়ারি ছিল ঢাকার দুই সিটি মেয়র নির্বাচন! অন্যদিকে ফাইনাল ম্যাচটির সূচী নির্ধারিত ছিল ২১ ফেব্রুয়ারি, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন।

শেষ পর্যন্ত সূচী পরিবর্তন করেছে বিসিবি। শুধু সূচীই নয় পরিবর্তন এসেছে ম্যাচের কাঠামোতেও। চারদিন নয় পাঁচ দিনের ম্যাচ দেখা যাবে বিসিলের এবারের আসরের ফাইনালে। ভেন্যু বদলে সিলেট থেকে সরেছে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

২১ ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ২২ ফেব্রুয়ারি রোজ শনিবার মাঠে গড়াবে ফাইনাল ম্যাচটি। মুখোমুখি হবে প্রথম তিন রাউন্ড শেষে শীর্ষে থাকা দুই দল। তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচ দুটি চলছে কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। পাশাপাশি দুই গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হয়েছে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোন ও বিসিবি নর্থ জোন এবং ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন ও বিসিবি সাউথ জোন।

প্রথম দুই রাউন্ড শেষে ফাইনালের দৌড়ে এগিয়ে আছে বিসিবি সাউথ জোন ও ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোন। তিন নম্বর অবস্থানে থাকা ওয়ালট সেন্ট্রাল জোনের সামনেও থাকছে সুযোগ। তবে টুর্নামেন্টের আরেক দল বিসিবি নর্থ জনের ফাইনাল খেলার সুযোগ শেষ হয়ে যায় প্রথম দুই ম্যাচের একটিতেও জিততে না পারার পরই।

এদিকে বিসিএলের এবারের আসরের ফাইনাল গোলাপি বল ও ফ্লাড লাইটের আলোয় হওয়ার একটা আভাস শুরুতে থাকলেও সেটি আর হচ্ছেনা। ফলে ২০১৩ সালের বিসিএলের ফাইনালই বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে একমাত্র দিবা-রাত্রির লংগার ভার্সন ম্যাচ হয়ে আছে। ২২ ফেব্রুয়ারি শুরু হতে যাওয়া বিসিএলের ফাইনাল ম্যাচের দিনই মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে একমাত্র টেস্টে মুখোমুখি হবে জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশ দলও।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ইয়াসির আলির ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, সানজামুলের ৭ উইকেট

Read Next

রান বন্যার ম্যাচে ইংল্যান্ডের জয়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
8
Share
error: Content is protected !!