খালেদ মাহমুদ সুজনের প্রসংশায় আমির

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে এক মোহাম্মদ আমিরের সুইং আর বাউন্সের কাছেই থামতে হয় রাজশাহী রয়্যালসকে। পাকিস্তানি এই পেসারের দুর্দান্ত বোলিংয়ে রাজশাহীকে ২৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে চলে গেল খুলনা টাইগার্স ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে আমির জানালেন, এমন অতিমানবীয় পারফর্ম্যান্সের রহস্য। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ইনিংসের জন্য কৃতিত্ব পেলেন শান্ত। প্রসংশা করেছেন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজনের।

মিরপুরে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করলেন পেসার মোহাম্মদ আমির। খুলনা টাইগার্সের হয়ে খেলা পাকিস্তানি এই পেসার রাজশাহী রয়্যালসের বিপক্ষে ৪ ওভারে ১৭ রান দিয়ে নিলেন ৬টি উইকেট। বিপিএলের ইতিহাসে এটি সেরা বোলিং ফিগার।

মোহাম্মদ আমিরের প্রথম স্পেলে ধ্বংস হয়ে যায় রাজশাহীর টপ-অর্ডার। নিজের এমন বোলিং নিয়ে আমিরের বক্তব্য,

‘আমার মনে হয় আপনি যখন লাইটের নিচে বোলিং করেন তখন আপনাকে সুইংয়ের সন্ধান করতে হবে। আমি সঠিক জায়গায় বোলিং করছিলাম। তাঁদের দুই ওপেনারই ভালো ফর্মে ছিল, তাই আমি ভেবেছিলাম যে যদি দু’জনকেই ফিরিয়ে দিতে পারি তবে আমাদের জয়ের জন্য ভাল সুযোগ হবে।’

আগের ম্যাচে ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করে দলকে রেকর্ড জয় উপহার দেন শান্ত। কোয়ালিফায়ার ম্যাচেও সেই ব্যাটিং ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছেন। ব্যাট হাতে শান্ত হয়েছেন অশান্ত। এই শান্ত’র প্রসংশায় মোহাম্মদ আমির। জয়ের কৃতিত্ব শান্তকেও দিলেন আমির,

‘সব কৃতিত্ব ব্যাটসম্যানদের দিতে হবে। এমন উইকেটে ব্যাটসম্যানদের রান করাটা সহজ ছিল না। বোলারদের জন্য সুবিধাজনক ছিল। যেভাবে খেলেছে, সব কৃতিত্ব শান্তকে দিব। তবে শেষ পর্যন্ত ভালো ব্যাটিং করেছে। লড়াই করার জন্য ব্যাটসম্যানদের সহযোগিতায় ভালো একটা সংগ্রহ পেয়েছিলাম আমরা।’

খুলনা টাইগার্সের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। তাঁর প্রসংশা করতেও যেন ভুললেন না আমির। খালেদ মাহমুদ সুজনের সাথে কাজ করে কেমন উপভোগ করছেন আমির? সংবাদ সম্মেলনে এই প্রশ্নের উত্তরে আমির বলেন,

‘সুজন ভাই একজন দারুণ মানুষ। আমি মনে করি বাংলাদেশের সবাই এটা জানে। তিনি আমার প্রতি সদয়।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ব্রাভোর নতুন শুরুঃ ‘আই ফিল লাইক অ্যা কিড এগেইন’

Read Next

মাঠ থেকে অবসর নেওয়া হচ্ছেনা মাশরাফির!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
18
Share