মাঠেই হাফিজের ‘বোলিং অ্যাকশন’ নিয়ে টেলরের অভিযোগ!

মোহাম্মদ হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ যেনো কাটছেই না। বেশ কয়েকবার বোলিং অ্যাকশন নির্ধারিত মানদন্ডের সাথে না মেলাতে বল করা থেকে বিরত থাকতে হয়েছে তাঁকে। এবার সেই মোহাম্মদ হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে মাঠেই প্রকাশ্যে প্রশ্ন তুললেন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান রস টেলর।

আবুধাবিতে পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম ওয়ানডেতে হাফিজের বল করার সময় রস টেলর আম্পায়ার বা অপর প্রান্তে থাকা সঙ্গী টম লাথামের দিকে কনুই বাঁকিয়ে নির্দেশ করেন। যেটাতে স্পষ্ট বোঝা যায় হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্তুষ্ট নন তিনি। এটা পছন্দ হয়নি পাকিস্তান দলপতি সরফরাজ আহমেদের। তিনি অন ফিল্ড আম্পায়ারদের সাথে এটা নিয়ে বেশ সময় নিয়ে কথা বলেন। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয় রস টেলরের সঙ্গেও।

অনফিল্ড আম্পায়ার শোয়েব রাজা ও জোয়েল উইলসন ঘটনায় নাক গলান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে। এই প্রকাশ্যে অভিযোগ তোলাতে বিপাকে পড়তে পারেন রস টেলরও! আইসিসির রুলবুকে ক্রিকেটারদের অনফিল্ড ব্যবহার নিয়ে থাকা নিয়ম টেলর ভঙ্গ করেছেন কিনা তা খতিয়ে দেখবে ম্যাচ রেফারি। প্রসঙ্গত, ৬ ওভার বল করে ২৩ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি হাফিজ।

২০০৯ সালে এমন ঘটনা ঘটেছিল একবার পাকিস্তানের বোলারের সঙ্গে। সাইদ আজমলের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে মাঠেই অসন্তুষ্টি জানিয়েছিলেন অজি ব্যাটসম্যান শেন ওয়াটসন।

ছবিঃ টুইটার

অফস্পিনার মোহাম্মদ হাফিজে বোলিং থেকে নিষিদ্ধ হবার ঘটনা ঘটেছে ৪ বার। গত ৪ বছরেই নিষিদ্ধ হয়েছেন ৩ বার। ২০০৫ সালে অজিদের মাঠে প্রথমবার অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।

ঘটনার বৃত্তান্ত দেখুন ভিডিওতেঃ

শিহাব আহসান খান

Read Previous

সৌম্যর আক্ষেপের দিনে শূন্য হাতে ফিরেছেন তুষার

Read Next

‘আমি বিশ্বাস করি এরা সবাই ভালো ক্রিকেটার’ 

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।