কলম্বোতে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

বাংলাদেশ 'এ' দল

ব্যাট হাতে দাপুটে এক সেঞ্চুরি করে দলকে আগে থেকেই এগিয়ে রেখেছিলেন সাইফ হাসান। পরে বল হাতেও নিজের কার্যকারিতা দেখিয়েছেন সাইফ। সাইফের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে কলম্বোতে তৃতীয় ও শেষ আনঅফিসিয়াল ওয়ানডে ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

৩২৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল। দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার পাথুম নিসাঙ্কাকে ফিরিয়ে স্বাগতিকদের কাজটা কঠিন করে দেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। ৫ম ওভারে অপর ওপেনার সান্দুন বিরাক্কোডি আউট হন আবু হায়দার রনির বলে বোল্ড হয়ে।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৬৪ রান যোগ করে বিপর্যয় সামলান কামিন্দু মেন্ডিস ও অধিনায়ক আসান প্রিয়ঞ্জন। ৩৫ বলে ৪ চারে ৩৪ রান করা প্রিয়ঞ্জনকে রিশাদ হাসানের (সাব) ক্যাচ বানিয়ে নিজের প্রথম উইকেট পান সাইফ হাসান। পরে ফেরান প্রিয়মল পেরেরাকেও (৭)।

নিজের চতুর্থ ওভারে বল করতে এসে আসেন বান্দারাকে সাজঘরের পথ দেখান পেসার এবাদত হোসেন। ৬৫ বলে ২ চার ও ৩ ছয়ে ৫৫ রান করা কামিন্দু মেন্ডিসকে এবাদত ফেরান নিজের পঞ্চম ওভারে।

২৪.৪ ওভারে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের রান যখন ৬ উইকেটে ১৩০ তখন আলোক স্বল্পতায় খেলা বন্ধ হয়। পরে আর খেলা চালিয়ে না নেওয়া গেলে ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

এর আগে টসে জিতে আগে সফরকারীদের ব্যাট করতে পাঠান লঙ্কান ‘এ’ দলের অধিনায়ক আসান প্রিয়ঞ্জন।

বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন দুই তরুণ ওপেনার সাইফ হাসান ও মোহাম্মদ নাইম। আগের ম্যাচে ফিফটি করা মোহাম্মদ নাইম শেখ আজও তুলে নিয়েছেন ফিফটি। রানের দেখা পেয়েছেন সাইফ হাসানও।

উদ্বোধনী জুটিতে আসে ১২০ রান। দারুণ খেলতে থাকা মোহাম্মদ নাইম আউট হন ফিল্ডিংয়ে বাধা দিয়ে (অবস্ট্রাকটিং দ্যা ফিল্ড)। ৭৬ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৬৬ রান করেন নাইম। এরপর তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত আউট হন দ্রুতই। ১২ বল খেলে করতে পারেন কেবল ২ রান।

চারে নামা এনামুল হক বিজয় ভালো কিছু করার আভাস দিয়েও থামেন ২১ বলে ২ চারে ১৫ রান করে।

চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুনকে সঙ্গে নিয়ে ৯৯ রানের জুটি গড়েন সাইফ হাসান। ১১০ বলে ১২ চার ও ৩ ছয়ে ১১৭ রান করে আউট হন সাইফ। লিস্ট এ ক্রিকেটে এটি সাইফের ৬ষ্ঠ সেঞ্চুরি।

শেষদিকে দ্রুত রান তোলার তাগিদে আউট হন মিঠুন। ৩৫ বলে ১ চার, ২ ছয়ে ৩২ রান করা মিঠুন ফার্নান্দোর বলে ধরা পড়েন রমেশ মেন্ডিসের হাতে। ৪৬ তম ওভারের ৫ম বলে ১৩ বলে ১ বাউন্ডারিতে ১২ রান করে সাজঘরে ফেরেন আফিফ হোসেন ধ্রুব।

আউট হবার আগে ১ টি করে চার ও ছয়ে ১৭ রান করেন নুরুল হাসান সোহান। শেষমেশ ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ৩২২ রান করে শেষ হয় সফরকারীদের ইনিংস। ৭ বলে ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন সানজামুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ‘এ’ দল ৩২২/৯ (৫০), সাইফ ১১৭, নাইম ৬৬, শান্ত ২, বিজয় ১৫, মিঠুন ৩২, আফিফ ১২, সোহান ১৭, আরিফুল ৬, রনি ৮, সানজামুল ১২*, এবাদত ৩*; বিশ্ব ফার্নান্দো ৬৯/৩, শিরান ফার্নান্দো ৫০/৪, আপোন্সো ৬১/১।

শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল ১৩০/৬ (২৪.৪), নিসাঙ্কা ৬, বিরাক্কোডি ১৮, কামিন্দু ৫৫, প্রিয়ঞ্জন ৩৪, প্রিয়মল ৭, বান্দারা ৬, চামিকা ১*, রমেশ ১*; রনি ৫-০-২৮-১, আফিফ ৬-০-৩৬-১, এবাদত ৪.৪-০-২৬-২, সাইফ ৬-০-২৫-২।

ফলাফল: বাংলাদেশ ‘এ’ দল ৯৮ রানে জয়ী (ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে)

সিরিজে বাংলাদেশ ‘এ’ দল ২-১ ব্যবধানে জয়ী।

শিহাব আহসান খান

Read Previous

নাফিস-রাব্বির ফিফটি, ব্যর্থ আশরাফুল-মোসাদ্দেক

Read Next

জাবিদ-শহিদুলে মিরপুরে ঢাকা মেট্রোর রাজত্ব

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।