৬২ টি পদে ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসিবি

ইসিবি

করোনার মহামারীর প্রভাবে অতিরিক্ত বেতনের ঝুঁকি কমাতে ইসিবি এক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কর্মীদের নিয়োজিত বাজেটের ২০ ভাগ খরচ কমাতে সংস্থার ৬২টি পদে ছাঁটাই করা হবে। অন্যান্য কর্মীরা সময়ভিত্তিক বা মৌসুম অনুযায়ী কাজ করবে। সোমবার বিকালে এক সভায় এ পরিকল্পনা করা হয়।

অর্থ সংক্রান্ত এক-দুইটি ক্ষেত্র ব্যতীত প্রায় সকল বিভাগে এ কার্যবিধান নিশ্চিত করা হবে।

অতিরিক্ত খরচ কমাতে যে এ কার্যক্রম হচ্ছে, এ ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন ইসিবি সভাপতি। একই সাথে ২০২১ সালের ক্রিকেট কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে আরও কিছু অপ্রত্যাশিত ঘোষণাও আসবে।

কিছু পদ খালি হয়ে গেলেও ইসিবি অবশ্য খরচ কমানোর দিকেই বেশি জোর দিচ্ছে। এদিকে এ কঠোর সিদ্ধান্তে ইসিবির অনেক কর্মীদের চোখ অশ্রসজলও বলে জানা আছে।

এপ্রিলে ইসিবির কার্যনির্বাহী সদস্যদের ২০ ভাগ বেতন কর্তন করা হয়। প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসনের ২৫ ভাগ বেতন কাটা হয়। অক্টোবর পর্যন্ত এ অবস্থা বিদ্যামান থাকবে।

খরচ কমাতে আরও কিছু সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ইসিবি। লর্ডসের মাঠে আপাতত খেলা থেকে বিরত রাখা, অফিসের দৈর্ঘ্য কমাতে চাওয়া তার মধ্যে বিদ্দ্যমান। এছাড়া সঞ্চয়ের পরিমাণও কমাবে তারা।

এছাড়াও সেন্ট জন উডের বাইরে একটি সদর দফতর খুঁজছে ইসিবি।

ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন বলেন, ‘কোভিড-১৯-এর অভাবে ক্রিকেট পরিচালনা করাটা এখন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। ইতিমধ্যে খেলা না হওয়ায় ১০০ মিলিয়ন পাউন্ডের ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছি, অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সামনের বছর ২০০ মিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতির সম্ভাবনা আছে। খেলা চলাকালীন অবস্থায় আমরা এখন থেকে খরচ কমানোর দিকে সচেষ্ট থাকবো।’

‘নিকট ভবিষ্যতে খেলা পরিচালনার ক্ষেত্রে ইসিবিকে আরও বাস্তবসম্মত হতে হবে। সাত মাস ধরে খেলা না থাকাটা কল্পনারও বাইরে। যদিও ২০১৯ সালটা আমাদের জন্য অনেক ভাগ্যপ্রসূত ছিল। আমাদের লক্ষ্য এবং শক্তি আগের মতই আছে। কিন্তু আমরা আমাদের পরিকল্পনায় কিছুটা উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনছি।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘বাংলাদেশে সে রকম টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় নেই’

Read Next

পাকিস্তান সফরের জন্য অনুমতি পেয়েছে জিম্বাবুয়ে

Total
4
Share
error: Content is protected !!