সাকিব-রিয়াদকে দলে পেয়ে উচ্ছ্বসিত খুলনা, খেলবে চ্যাম্পিয়ন হবার জন্য

সাকিব-রিয়াদকে দলে পেয়ে উচ্ছ্বসিত খুলনা, খেলবে চ্যাম্পিয়ন হবার জন্য

আজ (১২ নভেম্বর) শেষ হল বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফট। সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকের ‘এ’ ক্যাটাগরির দুই জন ক্রিকেটার দলে ভিড়িয়েছে জেমকন খুলনা। প্রথম ডাকেই সাকিব আল হাসানকে দলে নেওয়া খুলনা ‘এ’ ক্যাটাগরি থেকে নিতে পারে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকেও। মূলত মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী তাদের প্রথম ডাকে মাহমুদউল্লাহকে না নেওয়াতেই এই বাড়তি সুযোগ কাজে লাগায় খুলনা।

ড্রাফট শেষে ‘এ’ ক্যাটাগরির দুই ক্রিকেটারকে দলে নিতে পেরে উচ্ছ্বসিত জেমকন খুলনার পরিচালক কাজী এনাম আহমেদ। বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি খুলনা টাইটান্সও একই প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন বলে খুলনা টাইটান্সের হয়ে বিপিএল খেলা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে দলে পাওয়াটা বাড়তি আনন্দ দিচ্ছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের দল জেমকন খুলনাকে।

রিয়াদকে পাওয়ার ব্যাপারে আশা ছিল না উল্লেখ করে ড্রাফট শেষে কাজী এনাম আহমেদ বলেন, ‘দেখেন আমরা যদি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট দেখি সাকিব বা রিয়াদ এরকম টপ দুইটা প্লেয়ার একই ক্যাটাগরি বা একই দলে পাবেন না। আমরা আশাই করিনি যে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আরেকটা দল পিক করবেনা তাদের প্রথম চয়েজে।’

সাকিব আল হাসান নিজে খুলনার (বিভাগ) ছেলে অন্যদিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বিপিএলে খেলেছেন খুলনা টাইটান্সের হয়ে। ফলে এই দুইজনকেই দলে পাওয়ায়টা জেমকন খুলনার জন্য ঘরের ছেলে ঘরে ফেরার মত ব্যাপার।

এ প্রসঙ্গে জেমকন গ্রুপের পরিচালক যোগ করেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত যে প্রথমত আমরা সাকিব আল হাসানকে পেয়েছি, সে খুলনার ছেলে। সাকিব অনেকদিন পর আবার খুলনার দলে ফিরে এসেছে এবং খুলনার হয়ে খেলবে। আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আমাদের যে স্পন্সর প্রতিষ্ঠান জেমকন গ্রুপ এটা বিপিএলে খুলনা টাইটান্সের স্পন্সর প্রতিষ্ঠান, রিয়াদ আমাদের খুলনা টাইটান্সে সব সময় ছিল, রিয়াদও আবার (আছে)। ঘরের ছেলে দুজনেই আবার ঘরে ফিরেছে।’

সাকিব আল হাসান ছাড়াও বেশ কয়েকজন খুলনার ক্রিকেটার সুযোগ পেয়েছেন জেমকন খুলনায়। দলের মালিকপক্ষও চেয়েছিল খুলনার ক্রিকেটারদের অগ্রাধিকার দেওয়ায়।

কাজী এনাম আহমেদ বলেন, ‘আমাদের একটা ইচ্ছে ছিল যেহেতু আমরা খুলনার দল খুলনার কিছু প্লেয়ার নিব। সেখানে আমরা সাকিব, বিজয়, ইমরুল, আল আমিনকে পেয়েছি। এটা আমাদের জন্য আনন্দের যে খুলনার ছেলেদের আমরা খুলনার দলে পেয়েছি। যেটা আগে পেয়ে থাকিনি, সুতরাং আমরা খুবই খুশি, খুবই অভিজ্ঞ দল।’

দলে সাকিব, রিয়াদ ছাড়া জাতীয় দলের হয়ে খেলা ক্রিকেটারদের পাশাপাশি আছে বেশ কিছু তরুণ প্রতিভা যারা অদূর ভবিষ্যতে জাতীয় দলের বিবেচনায় আছেন।

অভিজ্ঞ ও তরুণদের সমন্বয়ে গড়া দল নিয়ে বেশ সন্তুষ্ট জেমকন গ্রুপের পরিচালক, ‘সবমিলিয়ে আমরা দল নিয়ে খুব খুশি। আমাদের বেশ অভিজ্ঞ একটা দল হয়েছে। ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, আল আমিন হোসেন, হাসান মাহমুদ সবমিলিয়ে সবাই হয় জাতীয় দলের খেলোয়াড় কিংবা যারা জাতীয় দলে আসছে। আর কিছু তরুণ প্লেয়ার যেমন শামীম পাটোয়ারি। সুতরাং এটা আমাদের জন্য খুবই এক্সাইটিং।’

‘আমাদের প্রথম থেকেই লক্ষ্য ছিল একটা অভিজ্ঞ দল তৈরি করাতে। আমরা চাই খুলনার ছেলেদের, আমরা চাই যারা টি-টোয়েন্টি খেলে তাদের। এরকম একোটা দলই আমরা বানাতে পেরেছি। আমাদের আশা থাকবে এবং অবশ্যই লক্ষ্য থাকবে আমরা যেন শিরোপাটা অর্জন করতে পারি। সুতরাং আমরা চ্যাম্পিয়ন ফাইট দেওয়ার জন্য নেমেছি এবং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই খেলবো।’

জেমকন খুলনা-

সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, হাসান মাহমুদ, আল আমিন হোসেন, এনামুল হক বিজয়, শামীম হোসেন পাটোয়ারি, আরিফুল হক, শফিউল ইসলাম, শুভাগত হোম চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, মোহাম্মদ রিশাদ হোসেন, জাকির হাসান, নাজমুল ইসলাম অপু, সালমান হোসেন, জহুরুল ইসলাম অমি।

 

View this post on Instagram

 

Final squad of Gemcon Khulna. Rate this team #BangabandhuT20Cup2020 #BangabandhuT20Cup #GemconKhulna

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

হারিস রউফকে মিস করবে মেলবোর্ন স্টার্স

Read Next

তরুণদের নিয়ে দল গড়া ঢাকার প্রথম চয়েজ ছিল মুশফিক

Total
37
Share
error: Content is protected !!