১০৬ রানের জবাবে রোহিত-আগারওয়ালের মারমুখি ব্যাটিং

ইডেন গার্ডেনসে দিবারাত্রির টেস্টে ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দুই সেশনও খেলতে পারলো না বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। ৩০.৩ ওভারে মাত্র ১০৬ রানেই শেষ হয় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। জবাবে আল-আমিন হোসেনের করা প্রথম বলেই বাউন্ডারি হাকান মায়াঙ্ক আগারওয়াল। ৬ মেরে রানের খাতা খুলেন রোহিত শর্মা।

প্রথম ওভারে ভারতের স্কোর ১১/০।

ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ২৯ রানের ইনিংস খেলেন ওপেনার সাদমান ইসলাম অনিক। মাথায় বলের আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়া লিটন খেলেন ২৪ রানের ইনিংস। এছাড়া শেষদিকে স্পিনার নাইম হাসানের ব্যাটে আসে ১৯ রান।

বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন-আপকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করে গোলাপি বলে ৫ উইকেট শিকার করলেন পেসার ইশান্ত শর্মা। ১২ ওভার বলে মাত্র ২২ রান খরচে ইশান্তের ঝুলিতে আসে বাংলাদেশের ৫ উইকেট। এছাড়া উমেশ যাদব ৩টি ও মোহাম্মদ শামি ২টি উইকেট শিকার করেন।

ইনিংসের শুরুতেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরত হয় ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিমকে। স্কোরবোর্ডে ৩৮ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরমধ্যে তিন ব্যাটসম্যানই (মুমিনুল, মিঠুন, মুশফিক) ডাক মেরে প্যাভিলিয়নে যান। উমেশ যাদব ইনিংসের ১১তম ওভারের প্রথম ৩ বলে মুমিনুল-মিঠুনকে আউট করেন। মোহাম্মদ শামির বলে বোল্ড হন মুশফিকুর রহিম।

ওপেনার সাদমান ইসলাম ভালো শুরু করলেও উমেশ যাদবের বাউন্সের ফাঁদে পড়ে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ তুলেন। ৫২ বল খেলা সাদমান রান করেছেন ২৯; এর মধ্যে বাউন্ডারি হাঁকান ৫টি। উইকেটে থিতু হয়েও সাদমান আউট হয়ে ফিরলে বাংলাদেশের বিপদ আরও বাড়ে। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৬ রান করে ইশান্ত শর্মার বলে উইকেট রক্ষকের হাতে ক্যাচ তুলেন।

উইকেটে থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারলো না সাদমান। হেলমেটে বলের আঘাত লাগায় লিটন দাস ২৭ বলে ২৪ রানের ইনিংসের সময় রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে সাজঘরে ফেরত যান। মোহাম্মদ শামির বল লিটনের হেলমেটে আঘাত করে। লিটন আম্পায়ারের সঙ্গে কথা বলে বিশ্রামে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। সাইফ হাসান মাঠে এসে লিটনকে নিয়ে যান প্যাভিলিয়নে। লাঞ্চের আগে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়ার আগে ২৭ বলে ৫ বাউন্ডারিতে লিটনের ব্যাটে আসে ২৪ রান।

লাঞ্চ বিরতিতে যাওয়ার সময় ২১.৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেট ৭৩ রান।

এরপর লিটনের পরিবর্তে মিরাজ ব্যাট হাতে নেমে মাত্র ৮ রান করতেই আউট হন। মিরাজের পর নাইম আউট হলে ১০৬ রানেই শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস।

এর আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঐতিহ্যবাহি ঘন্টা বাজিয়ে ঐতিহাসিক দিবা-রাত্রি টেস্ট ম্যাচের শুভ উদ্বোধন করেন। এরপর ব্যাট হাতে নামেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও সাদমান ইসলাম। ইনিংসের প্রথম ৬ ওভার বেশ দেখে শুনেই পেসার ইশান্ত শর্মা ও উমেশ যাদবদের মোকাবিলা করেন ইমরুল-সাদমান। কিন্তু সপ্তম ওভারে ইশান্তের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ইমরুল কায়েস। রিভিউ নেন ইমরুল, কিন্তু রিভিউতে দেখায় বল লেগ স্ট্যাম্পে আঘাত করে। রিভিউ নষ্ট করে মাত্র ৪ রানে ফিরতে হয় ইমরুল কায়েসকে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

হাসপাতালে লিটন, এই টেস্টে আর ব্যাট করতে পারবেন না

Read Next

লিটনের পর ইডেন টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন নাইম হাসান

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।