৯৭ ডেস্ক

মিরপুরে মাহমুদউল্লাহ’র ক্যারিশম্যাটিক বোলিং

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট খেলার আগে নিজেদেরকে ঝালিয়ে নেবার মিশনে নেমেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ দল। নিজেদের মধ্যে দুই দল করে খেলছে প্রস্তুতি ম্যাচ। প্রথম দিনে অলআউট হবার আগে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন লাল দল করেছে ২৬৮ রান। আজ দ্বিতীয় দিন সবুজ দলের দুই ওপেনার ব্যাট হাতে নেমে দুজনই হয়েছেন ব্যর্থ। শূন্য রানে আউট সৌম্য, এই শূন্যতেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সাদমান ইসলাম। ব্যর্থ মুশফিকুর রহিম, অল্পতেই শেষ সবুজ দলের ইনিংস। রাহির শিকার ৪টি, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ব্যাট হাতে সেঞ্চুরির পর ৮.৩ ওভারে ৪ মেডেনসহ মাত্র ৪ রানে ৩ ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠান।

সবুজ দলের আউট হওয়া শেষ তিন ব্যাটসম্যানকে একাই সাজঘরের পথ দেখালেন সিলেটের পেসার আবু জায়েদ চৌধুরি রাহি। রাহির প্রথম উইকেট মুশফিকুর রহিম, এরপর মুমিনুলকে করলেন বোল্ড, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে স্লিপে বানালেন ক্যাচ। এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বল হাতে নিয়েছেন ৩ উইকেট। রাহি শিকার করলেন আরও একটি উইকেট। নিয়মিত উইকেট হারিয়ে দ্রুতই গুটিয়ে যায় সবুজ দল।

ইনিংসের শুরুতেই দুই ওপেনার সৌম্য-সাদমান শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলে সবুজ দলের হাল ধরতে আসেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও মুমিনুল হক। মুশফিকও যেন ব্যর্থ সাকিব, সৌম্য, সাদমানের মতো। ২১ বলে ৬ রান করে সবুজ দলের অধিনায়ক মুশফিক পেসার আবু জায়েদ রাহির বলে লিটন কুমার দাসের কাছে ক্যাচ তুলে ফিরলেন সাজঘরে। ব্যাট করছেন মুমিনুল হক।

আজ সকাল থেকেই মিরপুর হোম অফ ক্রিকেটে আলো স্বল্পতা, মেঘলা আকাশ, হালকা বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হতে কিছুক্ষণ দেড়ি হয়। ম্যাচ শুরু হলে বিপর্যয়ে পড়ে যায় সবুজ দল। দলের দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও সাদমান ইসলাম অনিক দুজনেই আউট হয়েছেন শূন্য রানে।

 

স্পিনার মেহেদী হাসানের বলে আউট হন ওপেনার সাদমান ইসলাম। আর সৌম্যকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের স্কোয়াডে না থাকা পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করে ৮ চার ও ১ ছয়ে ৬২ বলে ৫১ রান করেছেন মোসাদ্দেক হোসেন।

প্রথমবার নেমে ০ রানে আউট হওয়া সাদমান ইসলামও সাকিবের মতো আজ দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন। সাদমান দ্বিতীয়বার রান করলেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। রিয়াদের অফস্পিনে রিটার্ন ক্যাচ তুলে দেন ১৩ রান করা সাদমান। রিয়াদের বলেই ফরহাদ রেজা হয়েছেন ক্যাচ আউট। তাইজুল ইসলামকে করলেন বোল্ড।

৮.৩ ওভারে ৪ মেডেনসহ মাত্র ৪ রানে প্রতিপক্ষের ৩ ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।সবুজ দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট শিকার করলেন আবু জায়েদ রাহি। মেহেদি হাসান ও মুস্তাফিজ নিলেন ১টি করে উইকেট।

এর আগে গতকাল মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বাধীন সবুজ দলের বিপক্ষে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন লাল দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

লাল দলের হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামা দুইজনই হন ব্যর্থ। মোহাম্মদ মিঠুন ১ ও জহুরুল ইসলাম করেন ১৩ রান। সাকিব আল হাসানকে থিতু হবার সুযোগ না দিয়ে প্রথম বলেই বোল্ড করেন তাসকিন আহমেদ। থিতু হবার চেষ্টা আরেক বার অবশ্য করেছেন সাকিব। তবে সেযাত্রায় ২ টি চারের সাহায্যে ৯ রান করা সাকিবকে এলবিডব্লিউ করে ফিরিয়েছেন তাইজুল ইসলাম।

লিটন দাস ৭৩ বলে ২৩, সাব্বির রহমান ৫৩ বলে ৩৪ রান করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে মোটামুটি সঙ্গ দিয়েছেন। শেষদিকে নেমে ৪০ রান করা আবু হায়দার রনিও কম যাননি।

তবে সবাইকে ছাপিয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আরিফুল ইসলামকে তুলে মারতে যেয়ে আউট হন মাহমুদউল্লাহ। তাঁর আগে ১০ চারে ১৮৯ বল উইকেটে থেকে করেন ১০৭ রান।

২৬৮ রানে থেমেছে লাল দলের রানের চাকা। সবুজ দলের হয়ে তাসকিন ৪, এবাদত ৩ উইকেট নেন। তাইজুল, আরিফুল ও মোসাদ্দেক নেন ১ টি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

লাল দল প্রথম ইনিংস: ৮৪.১ ওভারে ২৬৮/১০ (মাহমুদউল্লাহ ১০৭, সাব্বির ৩৪, আবু হায়দার ৪০, শফিউল ১৯*; তাসকিন ৪/৪৫, এবাদত ৩/৪২)

সবুজ দল প্রথম ইনিংস: ৫২.৩ ওভারে ১২৫/১০ (সাদমান ০, সৌম্য ০, মুমিনুল ৩৫, মুশফিক ৬, মোসাদ্দেক ৫১, আরিফুল ৩, সাদমান ১৩, ফরহাদ ৫, তাইজুল ০, তাসকিন ৫, ইবাদত ৪*; মেহেদী ১/১৩, রাহি ৩/২২, আবু হায়দার ০/১০, মাহমুদউল্লাহ ৩/৪, আফ্রিদি ১/১০, মুস্তাফিজ ১/০, সাকিব ০/৪১, ইফ্রান ১/৫)।

মন্তব্য

CRICKET- 97
ডিপিএল খেলবেন দুই ভারতীয় ও এক পাকিস্তানি

ডিপিএলে (ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ) ক্লাবগুলো স্থানীয় খেলোয়াড় গুছিয়েছিলো প্লেয়ার বাই চয়েজ পদ্ধতি থেকে। তবে সেখানে কোনো বিদেশি ক্রিকেটারকে নিলামে তোলা...

ডিপিএল

বিস্তারিত

CRICKET- 97
‘মাশরাফির থেকে দায়িত্ব পেলে ভাল করার ইচ্ছা ১২০ ভাগ বেড়ে যায়’

নিজে আগেও বলেছেন ক্লাবের হয়ে ভাল কিছুই উপহার দিতে চান। প্রথম দু’ম্যাচে সে জায়গায় পুরোপুরিভাবে সফল বাংলাদেশী টেস্ট কাপ্তান মুশফিকুর...

ডিপিএল

বিস্তারিত

CRICKET- 97
মমিনুলের অনবদ্য শতকে ৩০০ পার গাজীর

লিস্ট এ ক্যারিয়ারের নিজের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংস খেলে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের দলীয় সংগ্রহকে ৩০০ পার করালেন মমিনুল হক। তার...

ডিপিএল

বিস্তারিত