ভুল স্বীকার করেছেন, তবে কখনো ক্ষমা চাইবেন না ধর্মসেনা!

সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপ ফাইনালের ফল পরিবর্তক মার্টিন গাপটিলের সেই থ্রো নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। এমসিসি’র মত ক্রিকেট আইন প্রণেতা সংস্থাও ইতোমধ্যে শুরু করেছে থ্রো নিয়মের পর্যালোচনা। অথচ মাঠে সেই বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দেওয়া আম্পায়ার কুমারা ধর্মসেনা বলছেন এমন সিদ্ধান্তের জন্য তিনি অনুতপ্ত নন, অমন সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চাওয়ার নিয়ম নেই বলেও করেছেন দাবি। যদিও স্বীকার করেছেন এটি একটি বিচারিক ভুল।

রুদ্ধশ্বাস ওই ম্যাচে শেষ তিন বলে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ৯ রান, ট্রেন্ট বোল্টের করা চতুর্থ বলে বেন স্টোকসের ব্যাট থেকে আসে একরান, দ্বিতীয় রান নিতে গিয়েই ফেরত আসা স্টোকসের ব্যাটে লেগে মার্টিন গাপটিলের থ্রো হয়ে যায় চার। থ্রো থেক আসা চার ও দৌড়ে নেওয়া এক রান সমেত স্কোরবোর্ডে ৫ রান যোগ হওয়ার কথা থাকলেও ধর্মসেনা দেন ৬ রান। শেষ দুইবলে দুই রান নিয়ে ম্যাচ টাই করে ইংল্যান্ড। পরে সুপার ওভারেও টাই হলেও বাউন্ডারি সমীকরণে শিরোপা জেতে ইংল্যান্ড। এরপরই বেশ সমালোচনার শিকার হন ধর্মসেনা, বুঝেশুনে সিদ্ধান্ত দিলে ফল হতে পারতো ভিন্ন এমনটাই দাবি অনেকের।

সাইমন টাফেলের মত বেশ জনপ্রিয় আম্পায়ারও বলেছেন স্পষ্টতই ভুল করেছে কুমারা ধর্মসেনা। কিন্তু দ্যা সানডে টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ধর্মসেনা বলছেন,” আমি একমত যে ওটা একটা বিচারিক ভুল ছিল যখন আমি এটা এখন টিভি রিপ্লেতে দেখছি। কিন্তু মাঠে আমাদের জন্য টিভি রিপ্লে দেখার মত বিলাসিতা নেই, আমি এমন সিদ্ধান্তের জন্য কখনোই ক্ষমা চাইবোনা। তাছাড়া আমার দেওয়া এমন সিদ্ধান্তের জন্য আইসিসিও প্রশংসা করেছে।”

যেখানে আম্পায়ার নিশ্চিত নন ব্যাটসম্যান দৌড় সমাপ্ত করেছে কিনা সেক্ষেত্রে চাইলেই কি ধর্মসেনা তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চাইতে পারতেন কিনা এমন প্রশ্ন জনমনে। টিভি রিপ্লে দেখে মন্তব্য করা সহজ উল্লেখ করে এই লঙ্কান আম্পায়ার জানান এধরণের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে চাইলেও তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চাওয়ার নিয়ম নেই। এ প্রসঙ্গে ধর্মসেনা বলেন,” এমন কোন আইনের বিধি নেই যেখানে কোন আউটের ঘটনা না ঘটলে তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চাওয়া যায়। টিভিতে রিপ্লে দেখে মন্তব্য করা সহজ।”

সরাসরি অপরাধের তীর ধর্মসেনার দিকে গেলেও তিনি নিজে বলছেন সিদ্ধান্ত দেওয়ার আগে অন্যান্য আম্পায়াররাও এ ব্যাপারে ছিল অবগত,” আমি লেগ আম্পায়ারের সাথে যোগাযোগ করছিলাম প্রযুক্তিনির্ভর যোগাযোগ মাধ্যম দিয়ে। যা তৃতীয় আম্পায়ার এমনকি ম্যাচ রেফারিও শুনেছেন। যেখানে তারাও টিভি রিপ্লে পরীক্ষা করতে পারেনি। আমি সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়ই তারা সবাই নিশ্চিত করেছে ব্যাটসম্যান দৌড় সমাপ্ত করেছে। “

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ধোনিকে ছাড়াই স্কোয়াড ঘোষণা, এসেছে দুই নতুন মুখ

Read Next

আইসিসির ডেভেলপমেন্ট দলের হয়ে খেলবেন জাহানারা-ফারাজানা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।