ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে থাকবে বিশেষ সশস্ত্র পুলিশ!

ভারতপাকিস্তান ম্যাচ দুই দেশের সমর্থকদের কাছে সব সয়মই উত্তেজনাআবেগের। দুদেশের সমর্থকরাই এই ম্যাচটায় আবেগে ভাসে। ১৬ জুন ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ভারতপাকিস্তান মুখোমুখি হবে। তুমুল উত্তেজনা থাকবে এই ম্যাচে, এমনটা আন্দাজ করা যায় আগে থেকেই। তাই কোনো রকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। ভারতপাক ম্যাচের নিরাপত্তায় থাকবে বিশেষ সশস্ত্র বাহিনী ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ২৫ হাজার দর্শক থাকবেন ভারতপাক ম্যাচ দেখতে।

প্রায় ৫ লাখ ক্রিকেটপ্রেমী মানুষ এই ম্যাচে টিকিট পাওয়ার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছিলেন। বিশ্বকাপে পাকিস্তান-ভারত ম্যাচের নিরাপত্তায় মাঠে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। উত্তপ্ত পরিস্থিতি এড়াতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। এছাড়াও স্টেডিয়ামের আশপাশে প্রতিটি লোকজনের চলাফেরার উপর নজরদারি চালানো হবে।

ইংল্যান্ডে ব্যাপক সংখ্যক ভারতীয় ও পাকিস্তানি বসবাস করেন। ব্রিটিশ পুলিশ স্থানীয় পাকিস্তানি-ভারতীয়দের ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করেছে। দুই দেশের সমর্থকদের একটা বড় অংশ ভারত-পাক ম্যাচের টিকিট পাওয়ার জন্য ঝাঁপিয়েছিলেন। এমনতিই দুই দেশের উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতির মাঝে এই ম্যাচ বাড়তি উত্তেজনা ছড়াচ্ছে। তার মধ্যে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর এই ম্যাচ না খেলার দাবি জানিয়েছিল ভারতীয় বোর্ড। কিন্তু আইসিসি-র তরফে সেই দাবি খারিজ করা হয়েছে। ফলে ভারত-পাক ম্যাচের উত্তেজনা আঁচ করতে পারছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ।

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হবে কি না, এ নিয়ে সন্দেহ ছিল কদিন আগেও। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভারতীয় আধা সামরিক বাহিনীর ওপর আত্মঘাতী হামলা করেছিল জঙ্গিরা। ৪০ জন সৈনিকের মৃত্যুর দায়টা পাকিস্তানের ওপরই দিয়েছিল ভারত। সে ইস্যুতে বিশ্বকাপের ম্যাচ বয়কটের পরামর্শও দিয়েছিল অনেক। এমনকি অনেক সাবেক ক্রিকেটারও সে দলে ছিলেন।

দুই দেশের রাজনৈতিক দ্বৈরথ শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপের ম্যাচে আঁচড় ফেলেনি। সবকিছু ঠিক থাকলে ১৬ জুন ওল্ড ট্রাফোর্ডে দেখা হবে ভারত ও পাকিস্তানের।

97 Desk

Read Previous

আজ থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ মিশন

Read Next

বিশ্বকাপে পরিবার সঙ্গে রাখার অনুমতি পায়নি পাকিস্তান দল

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।