বাবরকে টপকে শীর্ষে মালান, উডের লম্বা লাফ

আইসিসি র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে ডেভিড মালান

ব্যাট হাতে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে চলেছেন ইংলিশ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ডেভিড মালান। তার পুরষ্কারও পাচ্ছেন হাতে নাতে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ এক সিরিজ শেষ করে যেমন উঠে এসেছেন আইসিসি টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে জেতা সিরিজে ব্যাট হাতে অনবদ্য ছিলেন ডেভিড মালান। সিরিজে সর্বোচ্চ ১২৯ রান করে চার ধাপ এগিয়েছেন মালান। ৩৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান এখন দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাবর আজমের চেয়ে ৮ রেটিং পয়েন্ট এগিয়ে।

মালানের দুই সতীর্থ জনি বেয়ারস্টো ও জস বাটলার এগিয়েছেন র‍্যাংকিংয়ে। ৩ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৯ তম অবস্থানে বেয়ারস্টো। ১২ ধাপ এগিয়ে ২৮ নম্বরে উঠে এসেছেন দুই ম্যাচে ১২১ রান করা বাটলার।

সিরিজে অস্ট্রেলিয়া হারলেও ব্যাট হাতে রান পান অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ৩ ম্যাচে ১২৫ রান করা ফিঞ্চ নিজের তিন নম্বর জায়গা ধরে রেখেছেন। ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ে রেটিং হারিয়েও ৬ নম্বর জায়গা ধরে রাখা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল এগিয়েছেন অলরাউন্ডারদের তালিকায়। শন উইলিয়ামসকে টপকে দুই নম্বরে এখন ম্যাক্সি, শীর্ষে যথারীতি মোহাম্মদ নবি।

সিরিজে সর্বোচ্চ ৬ উইকেট নেওয়া আদিল রশিদ এগিয়েছেন ২ ধাপ, আছেন ৭ নম্বরে। অজি স্পিনার অ্যাশটন অ্যাগার ৫ উইকেট নিয়ে নিজের ৩ নম্বর অবস্থান ধরে রেখেছেন।

ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো সেরা দশে ঢুকেছেন অজি পেসার কেন রিচার্ডসন। ৭ ধাপ এগিয়ে ১৮ নম্বরে উঠে এসেছেন মিচেল স্টার্ক। মার্ক উড দিয়েছেন লম্বা লাফ, ৪১ ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ৭৯ নম্বরে।

টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিং (সেরা ১০)-

১. ডেভিড মালান (ইংল্যান্ড)- ৮৭৭
২. বাবর আজম (পাকিস্তান)- ৮৬৯
৩. অ্যারন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া)- ৮৩৫
৪. লোকেশ রাহুল (ভারত)- ৮২৪
৫. কলিন মুনরো (নিউজিল্যান্ড)- ৭৮৫

৬. গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া)- ৬৯৬
৭. হযরতউল্লাহ জাজাই (আফগানিস্তান)- ৬৭৬
৮. এভিন লুইস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)- ৬৭৪
৯. ভিরাট কোহলি (ভারত)- ৬৭৩
১০. এউইন মরগান (ইংল্যান্ড)- ৬৭১

টি-টোয়েন্টি বোলারদের র‍্যাংকিং (সেরা ১০)-

১. রাশিদ খান (আফগানিস্তান)- ৭৩৬
২. মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান)- ৭৩০
৩. অ্যাশটন অ্যাগার (অস্ট্রেলিয়া)- ৭০৬
৪. তাব্রাইজ শামসি (দক্ষিণ আফ্রিকা)- ৬৮১
৫. অ্যাডাম জাম্পা (অস্ট্রেলিয়া)- ৬৭৯

৬. মিচেল স্যান্টনার (নিউজিল্যান্ড)- ৬৭৭
৭. আদিল রশিদ (ইংল্যান্ড)- ৬৭৬
৮. ইমাদ ওয়াসিম (পাকিস্তান)- ৬৬৫
৯. শাদাব খান (পাকিস্তান)- ৬৫১
১০. কেন রিচার্ডসন (অস্ট্রেলিয়া)- ৬৪১

টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডারদের র‍্যাংকিং (সেরা ৫)-

১. মোহাম্মদ নবি (আফগানিস্তান)- ২৯৪
২. গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া)- ২২০
৩. শন উইলিয়ামস (জিম্বাবুয়ে)- ২১৩
৪. রিচার্ড বেরিংটন (স্কটল্যান্ড)- ১৯৪
৫. গ্যারেথ ডেলানি (আয়ারল্যান্ড)- ১৭০

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিসিবির সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করতে পারবেন সাকিব, তবে…

Read Next

২৭ বলেই ফাইনাল নিশ্চিত করল সেন্ট লুসিয়া জুকস

Total
3
Share
error: Content is protected !!