পাকিস্তানকে ধবলধোলাই করলো শ্রীলঙ্কা

শ্রীলঙ্কা পাকিস্তান

ঘরের মাঠে বেশ কয়েক বছর ধরেই নিয়মিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করতে পারছে না পাকিস্তান। একপ্রকার দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে এসেছিলো শ্রীলঙ্কা। করাচিতে ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিকদের জয়ের হার ছিলো শতভাগ। লাহোরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে স্বাগতিকদের পরাজয়ের হার শতভাগ।

আজ তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে র‍্যাংকিংয়ের ১ নম্বর দল পাকিস্তানকে ১৩ রানে পরাজিত করেছে দাসুন শানাকার নেতৃত্বাধীন শ্রীলঙ্কা (টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ে ৮)।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করে সফরকারীরা। পাঁচে নামা ওশাদা ফার্নান্দোর ৪৮ বলে অপরাজিত ৭৮ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান করে পাকিস্তান। মোহাম্মদ আমির ২৭ রান খরচে নেন ৩ উইকেট।

১৪৮ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা পাকিস্তান প্রথম বলেই ফখর জামানের উইকেট হারায়। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৭৬ রান যোগ করেন বাবর আজম ও হারিস সোহেল। ২৭ রান করে বাবর আউট হলেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে স্বাগতিকরা। শেষমেশ ৬ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান করতে পারে ২০ ওভারে। হারিস সোহেল দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ৩ টি উইকেট নেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। ২ উইকেট নেন লাহিরু কুমারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

শ্রীলঙ্কা ১৪৭/৭ (২০), গুনাথিলাকা ৮, সামারাবিক্রমা ১২, রাজাপাকশে ৩, পেরেরা ১৩, ফার্নান্দো ৭৮*, শানাকা ১২, মাদুশাঙ্কা ১, হাসারাঙ্গা ৬; ইমাদ ১৮/১, আমির ২৭/৩, ওয়াহাব ২৬/১।

পাকিস্তান ১৩৪/৬ (২০), ফখর ০, বাবর ২৭, হারিস ৫২, সরফরাজ ১৭, ইমাদ ৩, আসিফ ১, ইফতিখার ১৭*, ওয়াহাব ১২*; রাজিথা ১৭/১, কুমারা ২৪/২,হাসারাঙ্গা ২১/৩।

ফলাফলঃ শ্রীলঙ্কা ম্যাচে ১৩ রানে জয়ী ও সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জয়ী।

ম্যাচসেরা ও সিরিজসেরাঃ ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (শ্রীলঙ্কা)।

শিহাব আহসান খান

Read Previous

তামিমকে ড্রেসিংরুমের রোল মডেল ভাবছেন আফতাব

Read Next

এক জোড়া জুতা, জার্সি; অতঃপর বিশ্বের এক নম্বর বোলার

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।