নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ দল এ সপ্তাহেই পাকিস্তান যাচ্ছে

বিসিবি লোগো

বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর নিয়ে কম জল ঘোলা  হচ্ছিলনা। তবে সাম্প্রতিক সময়ে বিসিবি এসেছে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে, সরকারের পক্ষ থেকে ইতিবাচক সাড়া পেলেই কেবল পাকিস্তান সফর দেখবে আলোর মুখ। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে বাড়তি কোন চাপ আসছেনা বলেও জানিয়েছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান।

সাম্প্রতিক সময়ে দফায় দফায় বোর্ডের শীর্ষস্থানীয় কর্তারা বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফর নিয়ে দিয়েছেন সাংবাদিকদের করা প্রশ্নের উত্তর। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন থেকে ক্রিকেট পরিচালনা  বিভাগের প্রধান আকরাম খান, প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজনের পর এবার বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যানের কন্ঠেও সাকিব-তামিমদের পাকিস্তান সফর নিয়ে একই সুর।

তবে শুধু জাতীয় দল নয় বয়স ভিত্তিক ও নারী দলের নিরাপত্তাটাও বিসিবির কাছে সমান গুরুত্ব পাচ্ছে। তাইতো চলতি মাসের শেষদিকেই নারী দল ও ছেলেদের অনূর্ধ্ব ১৭ দলের পাকিস্তান সফরের আগেই নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ পাঠাচ্ছে সরকার।

মূলত পাকিস্তান সফরের সবুজ সংকেতটা জ্বলতে হবে সরকারের পক্ষ থেকেই। আজ (১৪ অক্টোবর) রাজধানীর বনানীতে নিজের কার্যালয়ে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান এসব বিষয় নিশ্চিত করেন।

এ প্রসঙ্গে দুপুরে সাংবাদিকদের জালাল ইউনুস বলেন, ‘পাকিস্তানে আমাদের তিনটি সফর আছে যেগুলো প্রস্তাবিত। মেয়েদের আছে, ছেলেদের অনূর্ধ্ব ১৭ আছে, আরেকটা হল আমাদের জাতীয় দল। এজন্য খুব শীঘ্রই চার সদস্যের একটি সরকারি নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ দল পাকিস্তান যাবে। নিরাপত্তা দেখভালের জন্য, সেটার উপর নির্ভর করছে সবকিছু। বোর্ডের একজন কর্মকর্তাও যেতে পারে তাদের সাথে।’

অন্য যেকোন সময়ের চাইতে এবার বাংলাদেশ জাতীয় দলকে নিজেদের দেশে নিতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে কিনা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানতে চাইলে জালাল ইউনুস আরও যোগ করেন, ‘না আমাদের উপর কোন চাপ নাই, এটার সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ আমাদের। যাবো কি যাবোনা এটা পুরোটাই সরকার ও ক্রিকেট বোর্ডের সিদ্ধান্ত। বিদেশ সফরের ক্ষেত্রে সরকারের অনুমতি ছাড়া কিছু করা সম্ভব নয়। বোর্ড যদি হ্যাঁ বলেও সরকারের অনুমতি ছাড়া এগোনো সম্ভব নয়।’

এর আগে আকরাম খানও জানিয়েছেন পাকিস্তানের চাওয়ায় কিছু আসে যায়না, বাংলাদেশের জন্য যেটা ভালো বিসিবি সেটাই করবে। এদিকে ঠিক কবে নাগাদ নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ দল পাকিস্তান যেতে পারে খোঁজ নিতে চেষ্টা করা হলে আগামী বুধবারের (১৬ অক্টোবর) কথাই জানিয়েছে কিছু সূত্র। তবে জালাল ইউনুস জানিয়েছেন এ ব্যাপারটি বোর্ডের নিরাপত্তা বিভাগের দায়িত্ব, তারাই ঠিক করবে সময়সূচি।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জানানো হলো কবে হবে বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফট

Read Next

ভিন্ন কিছুর সম্ভাবনা দেখছেন ‘লেগি বিপ্লব’ আবিষ্কারক

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।