জোড়া শতকে ভারতকে নাস্তানাবুদ করে জিতলো অস্ট্রেলিয়া

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজ প্রথম ওয়ানডেতে আগে ব্যাট করতে নেমে ২৫৫ রান তুলেছে ভারত সহজ টার্গেটে ভারতীয় বোলার’রা পাত্তাই পেলো না ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চের সামনে। রেকর্ড রানের ওপেনিং জুটি। দু’জনেরই শতক উদযাপন মুম্বাইয়ে। ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ার দারুণ শুরু।

ভয়ঙ্কর দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া। ভারত সফরে এসে এক সংবাদ সম্মেলনে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলেছিলেন, দাবানলের হতাশা ভোলাতে ভারতকে হারাতে চায় অস্ট্রেলিয়া দল। কথা রেখেছেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ, রেখেছেন ডেভিড ওয়ার্নার; সঙ্গে পুরো অস্ট্রেলিয়া দল।

অস্ট্রেলিয়াকে ২৫৬ রানের মোটামুটি একটা লক্ষ্য দেয় ভারত। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের সামনে পাত্তাই পায়নি ভারত। রেকর্ড রানের জুটিতে ১০ উইকেটে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া।

ওয়ার্নার পেয়েছেন নিজের ১৮ ওয়ানডে শতক। ফিঞ্চের এটি ১৬তম শতক। ভারতের বিপক্ষে কোনো ওপেনিং জুটিতে এটিই সর্বোচ্চ রান (২৫৮)। ডেভিড ওয়ার্নার ১১২ বলে ১৭ চার ও ৩ ছয়ে ১২৮* রান ও অ্যারন ফিঞ্চ ১১৪ বলে ১৩ চার ও ২ ছক্কায় ১১০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

শামি থেকে বুমরাহ-শার্দুল, কুলদীপ, জাদেজা প্রত্যেকই উইকেট পেতে ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে ২৫৬ রান তাড়া করতে নেমে ভারতীয় বোলারদের উপর ছড়ি ঘুরিয়ে ৩৮ ওভারের মধ্যে কোনও উইকেট না হারিয়ে ম্যাচ জিতে নিল অস্ট্রেলিয়া।

এর আগে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড় স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং নেয় স্বাগতিকরা। দলীয় ১৩ রানে ওপেনার রোহিত শর্মার উইকেট হারায় ভারত। দ্বিতীয় উইকেটে লোকেশ রাহুলের সঙ্গে ১২১ রানের জুটি গড়েন অন্য ওপেনার শিখর ধাওয়ান। এক উইকেটে ১৩৪ রান করা ভারত পরের ১২১ রানের ব্যবধানে হারায় ৯ উইকেট।

ফিফটির ঠিক আগে অ্যাস্টন আগারের বলে আউট হওয়ার আগে ৬১ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৪৭ রান করেন লোকেশ রাহুল। শিখর ধাওয়ান কামিন্সের গতির শিকার হন। অ্যালেক্স ক্যারির হাতে ক্যাচ তুলে দেয়ার আগে ৯১ বলে ৯টি চার ও এক ছক্কায় ৭৪ রান করেন ধাওয়ান।

১৪ বলে ১৬ রানে ফেরেন ভিরাট কোহলি। ৪ রানের বেশি করতে পারেননি শ্রেয়াস আয়ার। পঞ্চম উইকেটে ৪৯ রানের জুটি গড়েন রিশাভ পান্ট ও রবীন্দ্র জাদেজা। ৩২ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ২৫ রান করে ফেরেন জাদেজা। ৪৯.১ ওভারে ২৫৫ রানে অলআউট হয় ভারত।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিচেল স্টার্ক তিন, প্যাট কামিন্স ও রিচার্ডসন দুটি করে উইকেট শিকার করেন।

১৭ জানুয়ারি রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ও ১৯ জানুয়ারি ব্যাঙ্গালোরোর চিন্নাস্বামীতে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচ রয়েছে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

পিসিবিকে ধন্যবাদ দিলেন বিসিবি সভাপতি

Read Next

গেইল দাঁড়ালে দাঁড়াতে পারবেনা প্রতিপক্ষ!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
41
Share
error: Content is protected !!