একই সময়ে দুই দেশে দুই সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার, কোচের ‘না’

জাস্টিন ল্যাঙ্গার

একই সময়ে অস্ট্রেলিয়ার এক দল খেলবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ, আরেক দল টেস্ট। এক দল নিউজিল্যান্ডে, আরেক দল দক্ষিণ আফ্রিকায়। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার তার দৃষ্টিকোণ থেকে এমন পরিকল্পনায় ঘোর আপত্তি জানিয়েছেন বোর্ডকে, ‘আমার এটা একদম পছন্দ হলো না।’

কোভিড-১৯ এর প্রভাবের কারণে অনেক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, সিরিজ হয়েছিল স্থগিত। তবে সংকট কাটিয়ে এই সময়ে মাঠে ফিরতে শুরু করছে ক্রিকেট সিরিজ গুলো। আইসিসির এফটিপিতে সূচি নিয়ে গোলমাল। অস্ট্রেলিয়া দল নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে আগামি বছরের ফেব্রুয়ারিতে। ওই সময়েই দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ খেলার কথা অস্ট্রেলিয়ার। সিরিজ বাতিল না করে বরং দুই দলকে দুই দেশে পাঠানোর পরিকল্পনা সাজিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ প্রসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার স্পোর্টস এন্টারটেইনমেন্ট নেটওয়ার্কে (সেন) অজি ক্রিকেট কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার বলেছেন,

‘শুধু দলের একজন কোচ হিসাবে বলছি না, বরং অস্ট্রেলিয়া দলের একজন শুভাকাঙ্ক্ষী হিসাবেই আমি এই কথা বলেছি। চেয়ারম্যান (আর্ল এডিংস) ও প্রধান নির্বাহীও (নিক হকলি) জানেন যে আমি এটা মোটেও পছন্দ করছি না। আমি একই সময়ে দুটো অস্ট্রেলিয়া দল চাই না। এটা আমার ব্যক্তিগত মত। হ্যাঁ বুঝতে পারছি এই বছর কোভিডের কারণে একটা জটিলতা তৈরি হয়েছে।’

‘আমরা তো এক দেশ, তাই না? আমরা দুই দেশ তো নই। এবং খেলাটাও একই।’

অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ টুর্নামেন্ট শুরু হবে ডিসেম্বরে। এরজন্যে চলমান শেফিল্ড শিল্ডের পরবর্তী ম্যাচগুলো ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত হবে। সে সময়ে নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে অস্ট্রেলিয়ার সেরা খেলোয়াড়রা চলে গেলে জনপ্রিয় শেফিল্ড শিল্ড উত্তেজনা হারাবে। শেফিল্ড শিল্ডের প্রসঙ্গ জড়িয়ে কোচ ল্যাঙ্গার বলেন,

‘দুইটা দল গঠন করতে চাইলে একেক দলে ১৮ জন করে মোট ৩৬ জন লাগবে যাদের ১৮ জন নিউজিল্যান্ডে ও ১৮ জন দক্ষিণ আফ্রিকায় যাবে। যদি আপনি দেশের সেরা ৩৬ জন খেলোয়াড়কেই নিয়ে চলে যান তাহলে শেফিল্ড শিল্ডের প্রতিযোগিতা কীভাবে জমবে? আমরা কিন্তু শেফিল শিল্ডকে বিশ্বের সেরা ঘরোয়া প্রতিযোগিতা বলে থাকি!’

করোনাভাইরাস পরবর্তী সময়ে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেট সিরিজ খেলবে নিউজিল্যান্ড। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের ফিউচার ট্যুর প্ল্যান অনুসারে অস্ট্রেলিয়া দল ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে।

কিন্তু এই সময়েই অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকায়। একই সময়ে এক দেশের পৃথক দুই দল দুই দেশে। আর এই সূচি জটিলতার সামনে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়া- নিউজিল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি সিরিজের সূচি-

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১- ১ম টি-টোয়েন্টি, ক্রাইস্টচার্চ
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১- ২য় টি-টোয়েন্টি, ডানেডিন
৩ মার্ভ ২০২১- ৩য় টি-টোয়েন্টি, ওয়েলিংটন
৫ মার্চ, ২০২১- ৪র্থ টি-টোয়েন্টি, অকল্যান্ড
৭ মার্চ, ২০২১- ৫ম টি-টোয়েন্টি, টাওর‍্যাঙ্গা

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

না ফেরার দেশে নিউজিল্যান্ডের প্রথম টেস্ট জয়ী অধিনায়ক

Read Next

কোহলির কাছ থেকে ‘জটিল খেলা ক্রিকেট’ শিখবেন পেপ গার্দিওলা

Total
5
Share
error: Content is protected !!