উমর আকমল ইস্যুতে পিসিবির অনুরোধ রেখেছে সিএএস

উমর আকমল

ফিক্সিং প্রস্তাব পেয়েও তা বোর্ডকে না জানানোয় পাকিস্তানের উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান উমর আকমলকে তিন বছর নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তবে একজন স্বাধীন বিচারপতি সেটিকে কমিয়ে ১৮ মাসে আনে, যা মানতে নারাজ পিসিবি। নিজেদের অবস্থান অনড় রাখতে দ্বারস্থ হয় সুইজারল্যান্ডের কোর্ট অফ অ্যারবিট্রেশন ফর স্পোর্টসের (সিএএসের)।

আর এই ইস্যুতে শুনানির জন্য দুই পক্ষকেই সুইজারল্যান্ডে হাজির হতে নোটিশ দেয় সিএএস। কিন্তু সেটিতেও আপত্তি প্রকাশ করে পিসিবি, পুরো প্রক্রিয়ায় নিজেদের জটিলতা কমাতে ভার্চুয়াল সভা কিংবা দুবাইতে শুনানি আয়োজনের অনুরোধ করে।

সিএএসের এমন তলবে রাজি ছিল উমর আকমলের আইনী পক্ষ। তবে শেষ পর্যন্ত পিসিবির অনুরোধই রেখেছে সিএএস। শুনানি অনুষ্ঠিত হবে ভার্চুয়াল সভায়, ইতোমধ্যে নিজের সময় নিশ্চিত করতে ২ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে উমর আকমলকে।

পাকিস্তানের ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেট পাকিস্তানের’ প্রতিবেদন অনুসারে আগামী ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে পারে এই ভার্চুয়াল শুনানি। এর আগে উমর আকমল তার সাজা কমানোর ব্যাপারে একটি মামলা করে যেখানে পিসিবি নিজেদের দেওয়া শাস্তি বহাল রাখতে ফের আপিল করে।

উল্লেখ্য, ৩০ বছর বয়সী উমর আকমল পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএলে) ফিক্সিং প্রস্তাব পেয়েছেন। তবে বোর্ডকে না জানানোয় টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ফেব্রুয়ারিতে তাকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করে যা বিচার প্রক্রিয়া শেষে মার্চে পিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি (অব.) ফজল-ই-মিরান চৌহান আকমলকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

গেইলের রেকর্ড গড়ার রাতে রাজস্থানের দাপুটে জয়

Read Next

১০৪ বলে ওয়ার্নারকে ৭ বার আউটঃ ভাগ্যবান বলছেন ব্রড

Total
4
Share
error: Content is protected !!