আবু জায়েদ রাহিকে আইসিসির ভর্ৎসনা!

বাংলাদেশের ফাস্ট বোলার আবু জায়েদ রাহি আইসিসির লেভেল ১ এর কোড অফ কন্ডাক্ট ভেঙে আইসিসির আনুষ্ঠানিক ভর্ৎসনা পেয়েছেন। রাওয়ালপিন্ডিতে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার চলমান টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ঘটা ঘটনায় এমনটি হয়েছে।

আইসিসির কোড অফ কন্ডাক্টের অনুচ্ছেদ নম্বর ২.৫ ভেঙেছেন আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি। যেখানে বলা আছে আন্তর্জাতিক কোন ম্যাচ চলাকালীন সময়ে কাউকে আউট করার পর তার প্রতি এমন কোন ভাষার প্রয়োগ করা যাবে না, কোনরকম অ্যাকশন করা যাবে না যা তাকে আগ্রাসী কিছু করতে বাধ্য করতে পারে।

আইসিসি আনুষ্ঠানিক ভর্ৎসনা করার পাশাপাশি আবু জায়েদ রাহিকে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও দিয়েছে। ২৪ মাস সময়ে এই প্রথম ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন রাহি। ২৪ মাস সময়ের মধ্যে ৪ ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে সেটা সাসপেনশন পয়েন্টে পরিণত হয়। দুই সাসপেনশন পয়েন্টের জন্য কোন ক্রিকেটার ১ টেস্ট বা ২ ওয়ানডে বা ২ টি-টোয়েন্টির জন্য নিষিদ্ধ হয় (যে খেলা আগে আসে)।

ঘটনাটি ঘটে পাকিস্তানের ইনিংসের ২৩ তম ওভারে। পাকিস্তানের অধিনায়ক আজহার আলিকে আউট করে তার খুব কাছে যেয়ে উদযাপন করেন। যা আজহার আলিকে আগ্রাসী কোন রিপ্লাই দিতে প্রলুব্ধ করতে পারতো।

আইসিসির এলিট প্যানেলের ম্যাচ রেফারি রিচি রিচার্ডসন আবু জায়েদ রাহির ওপর শাস্তি আরোপ করেন। রাহি সেটা মেনে নেওয়ায় কোন শুনানির দরকার পড়েনি।

অন ফিল্ড আম্পায়ার নাইজেল লং ও ক্রিস গাফানি, তৃতীয় আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস এবং চতুর্থ আম্পায়ার শোজাব রাজা আবু জায়েদ রাহির নামে অভিযোগ করেন। যা আমলে নিয়ে শাস্তি দেন ম্যাচ রেফারি রিচি রিচার্ডসন।

লেভেল ১ এর কোড অফ কন্ডাক্টের সর্বনিম্ন শাস্তি আনুষ্ঠানিক ভর্ৎসনা। সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা এবং ১/২ ডিমেরিট পয়েন্ট।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দারুণ শুরু করে রান আউটে কাটা পড়লেন আশরাফুল

Read Next

ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share
error: Content is protected !!