অসম্ভবকে সম্ভব করেও রস টেলরের আফসোস

আগে ব্যাট করে ৩৩৫ রান করে ইংল্যান্ড। ৩৩৬ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য ছুঁতে গিয়ে নিউজিল্যান্ডের শুরুটা হয় ভয়াবহ। দলীয় ২ রানেই দুই ওপেনার কলিন মুনরো ও মার্টিন গাপটিলের উইকেট হারিয়ে বসে তারা।

৩য় ওভারেই তাই উইকেটে আসতে হয় রস টেলরকে। উইকেটে এসে প্রথমে তিনে নামা অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে জুটি বাঁধেন টেলর। এই জুটিতে আসে ৮৪ রান। ৪৫ রান করে স্টোকসের শিকারে পরিণত হন উইলিয়ামসন।

উইলিয়ামসনের বিদায়ের পরেই উইকেটে আসা টম লাথামকে নিয়ে অসম্ভবকে সম্ভব করার কাজ শুরু করেন রস টেলর। দুজনই রান প্যাডেলে পা রাখেন জোরেশোরে। একসঙ্গে উইকেটে থেকে ১৫৫ বল খেলে দুজন তোলেন ১৮৭ রান। ৬৭ বলে ২ টি চার ও ৩ টি ছয়ে ৭১ রান করে থামেন টম লাথাম।

তবে থামেননি আগামীকালই ৩৪ পূর্ণ করতে চলা রস টেলর। জয়ের হাসি মুখে রেখে রস টেলর যখন মাঠ ছাড়েন তখন তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ১৮১ রান! ১৪৭ বলে ১৭ টি চার ও ৬ টি ছক্কায় ১৮১ রান করে অপরাজিত থাকেন টেলর। শেষদিকে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ১২ বলে ২৩ ও হেনরি নিকোলস ১২ বলে অপরাজিত ১৩ রান করে টেলরকে দারুণ সঙ্গ দেন। নিউজিল্যান্ড জেতে ৩ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে।

দল জিতলেও একটা আফসোস বোধহয় থেকেই যাবে টেলরের। রান তাড়া করতে নেমে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংস খেলার খুব কাছে যেয়েও যে পারেননি টেলর। ২০১১ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে রান তাড়া করতে নেমে শেন ওয়াটসন করেছিলেন অপরাজিত ১৮৫ রান। ২০৫ সাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাহেন্দ্র সিং ধোনি ও ২০১২ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভিরাট কোহলির আছে সমান ১৮৩ রান করার কীর্তি। কোহলি ১৮৩ করে আউট হলেও অপরাজিত ছিলেন ধোনি। রান তাড়া করতে নেমে টেলরের রান তাই চতুর্থ সর্বোচ্চ। গেলবছর মার্টিন গাপটিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে করেছিলেন অপরাজিত ১৮০ রান।

টপ অর্ডারের ১ম তিন পজিশনে না নেমে রস টেলরের ১৮১* দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। ১৯৮৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অপরাজিত ১৮৯ রান করা ভিভ রিচার্ডস এই তালিকায় সবার উপরে। এছাড়া ১৯৮৭ সালে লঙ্কানদের বিপক্ষে ১৮১ রান করে আউট হয়েছিলেন ভিভ রিচার্ডস। কাকতালীয়ভাবে আজ ভিভ রিচার্ডসের জন্মদিন, আগামীকাল রস টেলরের!

টেলরের অবিশ্বাস্য ইনিংস দেখুন:

শিহাব আহসান খান

Read Previous

টেইলরের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ে রানের পাহাড় ডিঙালো নিউজিল্যান্ড

Read Next

শামির পরকীয়ার প্রমাণ দিলেন তার স্ত্রী

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।