গরমের সাথে অভ্যস্ত হতেই আগে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ

৯৭ প্রতিবেদক:

প্রকাশ : 1 মাস আগে আপডেট: 1 সেকেন্ড আগে
গরমের সাথে অভ্যস্ত হতেই আগে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ

গরমের সাথে অভ্যস্ত হতেই আগে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ

গরমের সাথে অভ্যস্ত হতেই আগে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত টানা দ্বিতীয়বার জিতলেন টস, আবারও সিদ্ধান্ত নেন আগে বোলিংয়ের। জিম্বাবুয়ের মতো তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষের বিপক্ষেও কেনো আগে ব্যাট করতে চায় না বাংলাদেশ। এর পেছনে আছে অবশ্য ভিন্ন কারণ, চট্টগ্রামের গরম আর আসন্ন বিশ্বকাপের কন্ডিশন ভাবনায় বাংলাদেশ আগে ফিল্ডিংয়ে নামে। গরম পরিবেশে মাঠের সাথে অভ্যস্ত হতেই টাইগার টিম ম্যানেজমেন্টের এই ভাবনা। রিশাদের কথায় পরিষ্কার, গরমকে সঙ্গী করেই আমেরিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিচ্ছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। 

টসে জিতে ব্যাটিং নেওয়া; রিশাদ হোসেন বলে গেলেন এটা অধিনায়ক আর কোচের সিদ্ধান্ত। খেলোয়াড়দের কাজ কেবল মাঠের খেলায় ফোকাস রাখা। বর্তমান বাংলাদেশের গরম আবহাওয়া আর বিশ্বকাপের ভেন্যুর কন্ডিশন ভাবনায় টসে জিতে বারবার বোলিং বেছে নেওয়া, গরমের সাথে অভ্যস্ত হওয়া। টস প্রসঙ্গে রিশাদের বক্তব্য,

'টস আসলে ব্যাটিং বোলিং যা পাই কোনো সমস্যা নাই। নরমালি আমাদের প্ল্যান থাকে বোলিং যেহেতু অনেক গরম। আমার মনে হয় বিশ্বকাপেও অনেক গরম থাকবে। আমরা চেষ্টা করতেসি অভ্যস্ত হওয়ার জন্য আরকি।'

ব্যাটিং নিলে অনুশীলন বেশি হত কিনা? এমন প্রশ্নের উত্তরে রিশাদ বলেন, 'সেটা তো আমি বলতে পারব না। ক্যাপ্টেন আর কোচের ব্যাপার। আমরা নরমালি চেষ্টা করি যে রোল থাকে সে রোল প্লে করার। সেটা ব্যাটিং হোক আর বোলিং হোক।'

১১৫-১২০ রানের মধ্যে জিম্বাবুয়েকে অলআউট করার সুযোগ ছিল। রিশাদের মতে, পাঁচ উইকেটের পর দ্রুত আরও দুই-একটা উইকেট নেওয়া লাগত। আগের ম্যাচেরই পুনরাবৃত্তি করল জিম্বাবুয়ে। এখানে উন্নতির জায়গা দেখছেন রিশাদ,

'না আসলে মাঝে মাঝে মনে হয় দেখবেন ৪-৫টা উইকেট পড়ে গেছে দ্রুত। সেখানে থেকে আরও ২-৩ উইকেট নিলে ১৪০ এর জায়গায় ১১৫-১২০ এর মধ্যে অলআউট হয়ে যেত। এখানে হয়ত আমরা আরও ভালো করতে পারব।'