আম্পায়ারিংয়ের সিদ্ধান্তে হতাশ হৃদয়

৯৭ প্রতিবেদক:

প্রকাশ : 1 সপ্তাহ আগে আপডেট: 1 সেকেন্ড আগে
আম্পায়ারিংয়ের সিদ্ধান্তে হতাশ হৃদয়

আম্পায়ারিংয়ের সিদ্ধান্তে হতাশ হৃদয়

আম্পায়ারিংয়ের সিদ্ধান্তে হতাশ হৃদয়

২০ ওভারের বিশ্বকাপে বাগে পেয়েও দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে না পারার আক্ষেপে ডুবছে বাংলাদেশ দল। ম্যাচ জিততে শেষ ৩ ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল মাত্র ২০ রান। ক্রিজে তখন দুই সেট ব্যাটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, তাওহীদ হৃদয়। হৃদয়ের আউট, জাকেরের ভুল শট সিলেকশনে সমীকরণ গিয়ে দাঁড়ায় ৬ বলে ১১ রানে। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের পরাজয় নিশ্চিত হয় ৪ রানে। আম্পায়ার্স কল এবং বিতর্কিত সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট তাওহীদ হৃদয়, সংবাদ সম্মেলনে তার কণ্ঠ ঝরল ক্ষোভ। 

নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে 'ডি' গ্রুপের ম্যাচে রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৪ রানে হেরে গেছে বাংলাদেশ। এ নিয়ে ৯টি টি-টোয়েন্টির সবগুলোতে জিতল তারা, বিশ্বকাপে জিতল চার ম্যাচে। ম্যাচ শেষে ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত কাঠগড়ায় তুললেন তাওহীদ হৃদয়।

বাংলাদেশের পুরো ইনিংস জুড়েই ছিল অনফিল্ড আম্পায়ারদের বেশ কিছু বিতর্কিত সিদ্ধান্ত। যা নিয়ে ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে তাওহীদ হৃদয় বলেন, 

 'সত্যি বলতে, ভালো সিদ্ধান্ত ছিল না। আঁটসাট ম্যাচে আমাদের জন্য ভালো কিছু ছিল না সেটি। আম্পায়ার আউট দিয়েছেন, তবে আমাদের জন্য কঠিন ছিল। ওই চারটি রান পেলে ম্যাচের চিত্র ভিন্ন হতে পারত। আর কিছু বলার নেই…।'

আইসিসির এই নিয়ম নিয়ে কোন ক্ষোভ নেই, তবে তাওহীদ বললেন আম্পায়ারিংয়ের উন্নতির কথা, 'নিয়ম তো… আইসিসি কী করেছে এটা তো আমার হাতে নেই। কিন্তু ঐ চারটা রান আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আম্পায়ারও মানুষ, ভুল হতেই পারে। কিন্তু আরও ২-১টা ওয়াইড দেয়নি। এমন ভেন্যুতে খেলা যেখানে রান হচ্ছে না, লো স্কোরিং ম্যাচ। সে জায়গায় ১-২ রান অনেক বড় ফ্যাক্ট। ঐ ৪ রান বা ২ ওয়াইড ক্লোজ কল ছিল। আমার আউটও আম্পায়ার্স কল ছিল। এই জায়গাগুলোতে উন্নতির জায়গা আছে। আইসিসির নিয়মে আমাদের হাত নেই।'