মুস্তাফিজের প্রথমটা শহীদ আফ্রিদি, ৪৯ ও ৫০ নম্বর কে?

আজ মিরপুরে ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ে লড়াইয়ে নামবে বাংলাদেশের বিপক্ষে। এ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের ২ উইকেট নিতে পারলেই টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে উইকেটের হাফ সেঞ্চুরি হবে মুস্তাফিজের। ৩০ ম্যাচে ৪৮ উইকেট ঝুলিতে রয়েছে ফিজের। সাকিব আল হাসানের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে এই রেকর্ডে নাম লেখাবেন মুস্তাফিজ।

মিরপুর হোম অফ ক্রিকেটে ২০১৫ সালের এপ্রিলে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদিকে আউট করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম উইকেট নেন মুস্তাফিজ। জীবনের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নেমেই নজর কেড়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ২০ রান দিয়ে দুই উইকেট নেয়া মুস্তাফিজ টি-টোয়েন্টিতে খেলেছেন আরও ২৯টি ম্যাচ। উইকেট শিকার করলেন মোট ৪৮টি।

আজ সেই মিরপুরেই জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। ২০১৫ সালে অভিষেক হওয়া সেই মুস্তাফিজ আজ দাঁড়িয়ে আছেন উইকেটের ‘হাফ-সেঞ্চুরি’র দ্বারপ্রান্তে। আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজের খেলা ৩১তম ম্যাচে ২ উইকেট পেলেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৫০ উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করবেন মুস্তাফিজ।

বাংলাদেশের হয়ে এই মাইলফলক প্রথম স্পর্শ করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ৭২ ম্যাচে ৮৮ উইকেট নিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব।

লাল-সবুজ জার্সিতে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট স্পিনার আবদুর রাজ্জাকের। ৩৪ ম্যাচে ৪৪ উইকেট শিকার করেন তিনি। এরপরের অবস্থানে আছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা; ৫৪ ম্যাচ খেলে মাশরাফি উইকেট নেন ৪২টি। মাশরাফির পর পাঁচ নম্বরে আছেন ৩৯ উইকেট (২৫ ম্যাচে) নেওয়া পেসার আল-আমিন হোসেন। তিনি সবশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৬ সালের মার্চে কোলকাতার ইডেন গার্ডেনে।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকঃ

সাকিব আল হাসানঃ ৮৮ উইকেট (৭২ ম্যাচ)

মুস্তাফিজুর রহমানঃ ৪৮ উইকেট (৩০ ম্যাচ)

আব্দুর রাজ্জাকঃ ৪৪ উইকেট (৩৪ ম্যাচ)

মাশরাফি বিন মর্তুজাঃ ৪২ উইকেট (৫৪ ম্যাচ)

আল-আমিন হোসেনঃ ৩৯ উইকেট (২৫ ম্যাচ)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মাথায় বলের আঘাতে হাসপাতালে আন্দ্রে রাসেল

Read Next

মিরপুরে সূর্যের আলোর দেখা মেলেনি এখনও

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।