বিশ্বকাপে ফিফটি ছোয়ার প্রথম হওয়ার অপেক্ষায় সাকিব

৯৭ প্রতিবেদক:

প্রকাশ : 1 মাস আগে আপডেট: 1 সেকেন্ড আগে
বিশ্বকাপে ফিফটি ছোয়ার প্রথম হওয়ার অপেক্ষায় সাকিব

বিশ্বকাপে ফিফটি ছোয়ার প্রথম হওয়ার অপেক্ষায় সাকিব

বিশ্বকাপে ফিফটি ছোয়ার প্রথম হওয়ার অপেক্ষায় সাকিব

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অন্যতম সফল ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। যিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন আধুনিক ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে। রেকর্ড ভাঙা গড়ার খেলা ক্রিকেটে রেকর্ড শুব্দটিকে নিজের সম্পত্তি বানিয়েছেন সাকিব। 

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার জুড়ে মোট উইকেট নিয়েছেন ১৪৫ টি। এবং টি টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি ১৬ বার ৪ উইকেট নিয়ে এখানেও সবার সেরা সাকিব। আফগান লেগি রাশিদ খান রয়েছেন সাকিবের পরের স্থানে।

শুধুমাত্র টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরেই সাকিবের নামের পাশে আছে ৪৭ টি উইকেট। ৪৭ উইকেট নিয়ে সাকিব শুধু বাংলাদেশরই নন, ৪৭ উইকেট নেওয়া সাকিব টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেরই সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সাকিব আল হাসানের ব্যাট ও বলের পারফর্ম্যান্সের ধারাবাহিকতা আর ভারসাম্য যেন চলছে কাধে কাধ মিলিয়ে। আর মাত্র ৩ টি উইকেটের দেখা পেলেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসে কেউ যেটা করতে পারেনি সেটাই ৩৭ বছর বয়সে প্রথমবারের মতো করে দেখাবেন টাইগার ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসান।  

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে ইতোমধ্যে দলের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন সাকিব। তাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম বোলার হিসেবে ৫০ উইকেট বা উইকেটের ফিফটি করার কীর্তি গড়বেন সাকিব। কারণ শীর্ষ ৫ উইকেট শিকারির বাকি সবাই অবসর নিয়েছেন। বিশ্বকাপে খেলবেন, এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে সাকিবের পর ৩১ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি শ্রীলঙ্কান ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য এবারের বিশ্বকাপে আরও একটি রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে এই অলরাউন্ডার। ২০০৭ থেকে ২০২৪ সবকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলেছেন সাকিব। আরও একজন ক্রিকেটার খেলেছেন, তিনি হচ্ছেন ভারতের রোহিত শর্মা। এ দুজনই সমানসংখ্যক বিশ্বকাপ খেললেও রোহিতের ম্যাচ খেলার পরিমাণ বেশি। রোহিত শর্মা খেলেছেন ৩৯ ম্যাচ। রোহিতের পর সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন সাকিব ৩৬ ম্যাচ। এ তালিকায় তিন নম্বরে আছেন ৩৪ ম্যাচ খেলা অজি ব্যাটার ডেভিড ওয়ার্নার।