আশুতোষের লড়াই বৃথা করে পাঞ্জাবকে হারাল মুম্বাই

৯৭ প্রতিবেদক:

প্রকাশ : 1 মাস আগে আপডেট: 1 সেকেন্ড আগে
আশুতোষের লড়াই বৃথা করে পাঞ্জাবকে হারাল মুম্বাই

আশুতোষের লড়াই বৃথা করে পাঞ্জাবকে হারাল মুম্বাই

আশুতোষের লড়াই বৃথা করে পাঞ্জাবকে হারাল মুম্বাই

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আরেকটি ম্যাচে জয় পেল। এবার পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে ম্যাচের নানা পরিবর্তনের মুখে শেষপর্যন্ত জয় এসেছে মুম্বাইয়ের পক্ষে। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভার খেলে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯২ রান সংগ্রহ করে মুম্বাই। রান তাড়া করতে নেমে সব উইকেট হারিয়ে ১৯.১ ওভারে ১৮৩ রানে শেষ হয় পাঞ্জাবের ইনিংস। মুল্লানপুরের ম্যাচে ৯ রানের ব্যবধান থেকে যায়। 

নেহায়েত কম কোনো রান নয়। সে রান তাড়া করতে যেয়ে পাঞ্জাব যে ধরনের শুরু করেছিল, তাতে আশাবাদী হওয়ার মতো কিছু ছিল না। দলটির প্রথম ৪ ব্যাটার ফিরেছেন যথাক্রমে; ৬, ০, ১, ১ রানে। পরের ব্যাটার হারপ্রীত সিং ফিরেছেন মাত্র ১৩ রান করে। তখন ৪৯ রান করে ৫ উইকেট হারিয়েছে পাঞ্জাব। 

এই ৫ উইকেটের মধ্যে জাসপ্রীত বুমরাহ ২ টি, জেরাল্ড কোয়েটজির পকেটে ওঠে একটি করে উইকেট।

পরের চিত্র কিছুটা আলাদা। আশুতোষ শর্মার গল্প রচনা হয়েছে, সাথে যোগ দিয়েছেন শশাঙ্ক সিং ও হারপ্রিত ব্রার। শশাঙ্ক যখন ২৫ বলে ৪১ রানে ফেরেন, দলের রান গিয়েছে ১১১ রানে, পাঞ্জাব হারিয়েছে ৭ উইকেট। 

এখনো বাকি আছে রান, হাতে নেই উইকেট। আশুতোষ আরো বেশি জ্বলে উঠলেন, সাথে হারপ্রিত। দুজন মিলে তোলেন ৩২ বলে ৫৭ টি রান। 

যখন ১৮ বলে দরকার আর ২৫ টি রান, কোয়েটজির ওভারের প্রথম বলে আশুতোষ ফিরে যান। এই ব্যাটার ৭ ছক্কা, ২ চারে ২৮ বলে ৬৮ রানে ফিরে যান। সুযোগ পেয়ে চেপে বসে মুম্বাই। এদিকে অষ্টম উইকেট হারিয়ে বসে বিপদ বাড়ে পাঞ্জাবের। 

পরের ওভার, হার্দিক পান্ডিয়ার চতুর্থ ডেলিভারিতে উইকেট হারায় হারপ্রিত। ফিরে যান ২০ বলে ২১ রানে। শেষ উইকেটটি হারাতেও আর বেশি দেরি হয়নি। একটি ছক্কা হাঁকানো কাগিসো রাবাদা ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলে ফিরলে শেষ হয় পাঞ্জাবের লড়াই। 

মুম্বাইয়ের পক্ষে বল হাতে জাসপ্রীত বুমরাহ ও জেরাল্ড কোয়েটজি দুজনেই নেন ৩ টি করে উইকেট। 

এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সুরিয়াকুমার যাদবের ব্যাটে চড়ে লম্বা রানের স্বপ্ন বুনেছে মুম্বাই। ওপেনার ইশান কিষান রান পাননি, আরেক ওপেনার রোহিত শর্মা অবশ্য বেশ কিছুটা রান তোলার চেষ্টা দেখিয়েছেন। পরে ফিরেছেন ৩৫ (২৫) রানে। 

সুরিয়াকুমারকে ক্রিজে রেখে রোহিত ফিরলে যোগ দন তিলক ভার্মা। এই দুই ব্যাটার মিলে এগিয়ে নেন দলকে। সুরিয়াকুমার যখন ফিরছেন, মুম্বাইয়ের রান তখন ৩ উইকেট হারিয়ে ১৪৮, চলছিল ১৭তম ওভারের খেলা। 

তিলক শেষপর্যন্ত ছিলেন অপরাজিত। তার সাথে যোগ হয়েছে হার্দিক পান্ডিয়ার ১০, টিম ডেভিডের ১৪ রান। পুরো ২০ ওভার খেলতে ৭ উইকেট হারিয়েছে মুম্বাই, রান থেমেছে ১৯২ এ এসে।

পাঞ্জাবের পক্ষে বল হাতে হারশাল প্যাটেল একাই নিয়েছেন ৩ উইকেট। স্যাম কারানের পকেটে এসেছে ২ টি উইকেট।