ধোনি একজন জাতীয় বীর: পুরান

৯৭ প্রতিবেদক:

প্রকাশ : 1 মাস আগে আপডেট: 1 সেকেন্ড আগে
ধোনি একজন জাতীয় বীর: পুরান

ধোনি একজন জাতীয় বীর: পুরান

ধোনি একজন জাতীয় বীর: পুরান

মহেন্দ্র সিং ধোনির জনপ্রিয়তা ভারতে কতটা বেশি, তা শুক্রবারে লক্ষ্ণৌ এর ঘরের মাঠে আবারও প্রমাণ হলো। যদিও এটা আর প্রমাণের কিছু বাকি নেই। চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন, তবে ব্যাট হাতে ধোনি এখনো সরব উপস্থিতি জানান দিয়ে যাচ্ছেন মাঠে। লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষেও খেললেন বীরের মতো। যদিও ম্যাচটি হেরেছে চেন্নাই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ তারকা নিকোলাস পুরান খেলছেন লক্ষ্ণৌ এর হয়ে। একানা স্টেডিয়ামের দর্শকেরা ধোনির প্রতি নিজেদের ভালোবাসা এমনভাবে প্রকাশ করল, যা দেখে পুরানও বেশ আপ্লূত হয়েছেন।

১২ বলে ২৩ রানে অপরাজিত ছিলেন এই ইন্ডিজ ব্যাটার। ছয় বল বাকি থাকতেই দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছেড়েছেন। তার আগে প্রথম ইনিংসে ধোনির ব্যাটে এসেছে এক ক্যামিও ইনিংস, যার সুবাধে চেন্নাইয়ের সংগ্রহ গিয়ে থেমেছে ১৭৬ রানে। ৯ বলে ২ ছক্কা ও ৩ চারে ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন ধোনি।

উইন্ডিজ তারকা পুরান বলেন, “শুধু এই আসরে নয়, প্রতিটি আসরেই। সে যখন ব্যাট হাতে নামে, বাইরে তখন হলুদের সমুদ্র। এটা দেখতে দারুণ লাগে। সে একজন জাতীয় বীর।”

স্টার স্পোর্টসের সাথে আলাপকালে পুরান এসব কথা জানিয়েছেন। পরে আরো যোগ করেন, “আমরা ব্রায়ান লারার সময়ে খেলিনি, সবাই তার ডাই-হার্ড ভক্ত ছিল। তবে এটা সুন্দর এমন কিছু সামনে দেখা। তেমন এক পজিশনে থাকতে পারাও ভালো লাগার ব্যাপার। তবে খুশি লাগে তার সাথে একই জায়গায় থাকতে পারা, এসব মুহুর্ত ভাগাভাগি করা, আমরা আমাদের বাচ্চা ও নাতিনাতনিদের বলতে পারব এসব।”

গতকালের ম্যাচে চেন্নাইয়ের ১৭৬ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে অনেকটা সহজেই জয় পেয়েছে লক্ষ্ণৌ। যেখানে অধিনায়ক লোকেশ রাহুলের ৮২ রানের ইনিংসের ভূমিকা ছিল, যেখানে কুইন্টন ডি ককের সাথে ছিল শত রান ছাড়ানো ওপেনিং জুটি। আর পুরানের ব্যাটিং কাজে লাগে জয়ের শেষ সুতোর বুনোন দিতে।