তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ চান মাশরাফি

fbg
Vinkmag ad

মাশরাফি বিন মর্তুজার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেখলেই বোঝা যায় তিনি কতটা উদগ্রীব ছিলেন সদ্য শেষ হওয়া অস্ট্রেলিয়ার সাথে টেস্ট সিরিজ নিয়ে। টেস্ট দলের সাথে না থেকেও আছেন দলের সাথে। দলকে সাহস জুগিয়েছেন সব সময়।

দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর প্রত্যাশাটা আরও বেড়ে গিয়েছিলো সবারই। সেখানে ওয়ানডে অধিনায়কেরও ব্যতিক্রম হওয়ার কথা না নিশ্চয়।

টেস্ট খেলেননা ২০০৯ সালে ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে ইনজুরি হওয়ার পর থেকে। অবসর নিয়েছেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে। গুঞ্জন শোনা যায় ওয়ানডে থেকেও অবসরে যাবেন শীঘ্রই। আর টেস্ট থেকে তো অলিখিত অবসর বলাই যায়।

bangladesh vs australia live m

যদিও এখন আর নিজের টেস্ট খেলা নিয়ে ভাবেননা মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে ঠিকই ভাবেন টেস্ট দল নিয়ে। রোমাঞ্চিত হন প্রতিটা ম্যাচেই। ১১ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যিনি ছিলেন টেস্ট দলের প্রাণভোমরা, তিনি এবার হয়তো জয় কিংবা হারের মুহুর্তে নখ কামড়িয়েছেন গ্যালারী কিংবা টিভির সামনে বসে। মনে মনে হয়তো আফসোসও করেছেন, ইশ, আমি যদি থাকতাম !

এই সিরিজ নিয়ে গর্বের শেষ নেই ওয়ানডে অধিনায়কের। প্রথম টেস্টে জয়ের পর যেমন বলেছেন, “টেস্ট ক্রিকেটটাই বেশি রঙিন। সাদা শুনেছি কোন রঙ না, কিন্তু ক্রিকেটে সাদা রঙটাই হলো শেষ কথা। সে তার আপন মহিমায় সবাইকে রাঙায়।”

তেমনি পরের ম্যাচে দল হারাতেও শুভেচ্ছা জানাতে ভুল করেননি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে আক্ষেপটা থেকেই গেলো নড়াইল এক্সপ্রেসের। সিরিজ যদি তিন ম্যাচের হতো তবে ভিন্ন কিছুও হতে পারতো। হতে পারতো আরও রোমাঞ্চকর।

260351

মাশরাফি’র দাবি আরও বেশি টেস্ট খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। সময় এসেছে বেশি বেশি টেস্ট খেলার।

টেনে আনেন ইংল্যান্ড সিরিজের কথাও। বলেন, “সর্বশেষ ইংল্যান্ডের সাথে সিরিজ ১-১ এ ড্র করেছি আমরা। দেশের মাটিতে অন্তত ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের আয়োজন করা উচিৎ। এর জন্য প্রয়োজন বেশি বেশি টেস্ট খেলা। এখন সময় হয়েছে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলার।”

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ ড্র করায় দারুণ সন্তষ্ট মাশরাফি। খুশি দলের ধারাবাহিকতায়।

“দু’দলই লড়াই করেছে সমানে সমান। শেষ টেস্টে আমরা পিছিয়ে পড়েছি প্রথম ইনিংসে। প্রথম ইনিংস ভালো খেলতে পারলে ফলাফল অন্যরকম হতে পারতো।”

তবে ওয়ানডে অধিনায়ক কৃতিত্ব দিতে ভুলেননি বিপক্ষ দলের ক্রিকেটারদেরও।

“লায়ন এক কথায় অসাধারণ খেলেছে। সে যেভাবে তাঁর স্কিল দেখিয়েছে, বলা যায় আনপ্লেয়েবল ছিল।”

ওয়ানডে অধিনায়ক ধৈর্য ধরতে বলেছেন সমর্থকদেরও। মনে করিয়ে দিয়েছেন, “দারুণ ছিলো প্রতিপক্ষ দল।”

97 Desk

Read Previous

টাইগারদের সামনে এবার ‘মিশন আফ্রিকা’

Read Next

আবারও টাইগারদের মুখোমুখি হতে চান স্মিথ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share