বৈচিত্রের খোঁজে ‘দ্যা ফিজ’

featured photo1 1 20
Vinkmag ad

প্রযুক্তির এই যুগে এক অস্ত্রের উপর নির্ভর করা বোলাররা ঠিক যুৎ করে উঠতে পারেন না ঠিক। ভিডিও ফুটেজ দেখে বোলারের রহস্যটা ঠিকই বের করে ফেলেন প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা। ঠিক এই অভিজ্ঞতাটাই হয়েছে মুস্তাফিজুর রহমানের। তবে থেমে থাকতে রাজি নন মুস্তাফিজ, কাজ করে যাচ্ছেন বৈচিত্রময় বোলিংয়ের খোঁজে। 

নিজের ২২তম জন্মদিনটায় বাংলাদেশের হয়ে সেরা বোলিংটাই করেছেন দ্য ফিজ। চট্টগ্রাম টেস্টে এখন পর্যন্ত নিয়েছেন তিন উইকেট। কেক-টেক কেটে জহুর আহমেদের চৌধুরীর সংবাদ সম্মেলন কক্ষে দলের প্রতিনিধি হয়ে জানিয়ে গেছেন এক ধারার বল থেকে সরে নতুন কিছু করার প্রয়াসের কথা।

তবে যা শিখছেন এখনই তা প্রয়োগ করতে চাননা মাঠে। একটু হাত পাকিয়ে তবেই গোলা ছুঁড়তে চান কাটার মাস্টার। “নতুন ব্যাপারগুলো আমি অল্প কয়েকদিন অনুশীলন করেছি। এখনও সেভাবে পুরোটা চেষ্টা করিনি। এই ম্যাচে অর্ধেকটা চেষ্টা করেছি।”

Musta
ছবি- সংগৃহীত

মাঝে ছয় মাস ছিলেন মাঠের বাইরে। কাঁধের ইনজুরি সেরে ফিরে আসতে আসতে খেইটা একটু হারিয়েই ফেলেছেন বলা চলে। তবে কাজ করা থামাননি। কোর্টনির ওয়ালশের তত্ত্বাবধানে। নতুন অস্ত্র বা বৈচিত্র ঠিক কি সে ব্যাপারে পরিষ্কার জানালেন না কিছুই। তবে, আভাস দিয়েছেন নতুন কিছুর।

“এখানে স্টাম্প ঘেঁষে বোলিং করেছি। এখন আমার নতুন একটা বৈচিত্র্য নিয়ে কাজ করতে হবে। আগে কাটার ছিলো। এখন নতুন কিছু করতে হবে।”

প্রথমে কাটার, ব্যাটসম্যানকে এরপর মুস্তাফিজের অস্ত্রটা ছিল ইয়র্কার। চট্টগ্রাম টেস্টে মুস্তাফিজের হাত থেকে এসেছে বাউন্সারও। তাতেই মিলেছে ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট। তাই বাউন্সারে ভরসা খুঁজে পেয়েছেন মুস্তাফিজ।

“আমি এমনিতে বাউন্সার কম দেই। দুই বছরের ক্যারিয়ারে খুব কম বাউন্সার করেছি। এখন চেষ্টা করছি। ওভারে দুটি বাউন্সার যদি ভালো জায়গায় করতে পারি তাহলে ভালো। ব্যাটসম্যানের জন্য অসুবিধা, আমার জন্য ভালো।”

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

‘স্পেশাল’ দিনে মুস্তাফিজের ‘স্পেশাল’ উইকেট

Read Next

‘জয় অসম্ভব কিছুনা’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share