আইয়ারের ব্যাটিং’কে অতিমূল্যায়ন না করার পরামর্শ চ্যাপেলের

শ্রেয়াস আইয়ার

সাদা পোশাকে বেশ খারাপ সময় পার করছেন শ্রেয়াস আইয়ার। ভারতের মিডল অর্ডারে খেলে থাকেন, ইনিংস বড় করার দায়িত্ব থাকে কাঁধে- কিন্তু কিছুই ঠিকঠাক হচ্ছে না আইয়ারের। পিঠে কিছুটা খিঁচুনি ছিল, তবে মেডিকেল দল থেকে সবুজ সংকেতও মিলেছিল, তবুও শেষ ৩ টেস্টের স্কোয়াডে রাখা হয়নি আইয়ারকে। পিঠের খিঁচুনিও কারণ হতে পারে, কিন্তু সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক ইয়ান চ্যাপেল বলছেন, আইয়ারের ব্যাটিংকে আর অতিমূল্যায়ন করার প্রয়োজন নেই।

ভারতের নির্বাচকমণ্ডলীর প্রতি এই আহ্বান চ্যাপেলের। ইএসপিএন ক্রিকইনফো’তে একটি কলাম লিখেছেন সম্প্রতি। সেখানে আরও অনেক কথার মাঝে, আইয়ারের প্রসঙ্গ নিয়েও লিখেছেন চ্যাপেল।

লম্বা চোট কাটিয়ে ২০২৩ বিশ্বকাপে ফিরে আসেন আইয়ার। বিশ্বকাপে পুরো ভারত, সাথে আইয়ারও ছিলেন উজ্জ্বল। মিডল অর্ডার নিয়ে যে শঙ্কা ছিল, তা কাটিয়ে টুর্নামেন্টে ৫৩০ রান সংগ্রহ করেন এই ব্যাটার। কিন্তু সাদা পোশাকে একেবারেই মলিন আইয়ারের পারফরম্যান্স।

টেস্টে সর্বশেষ ১৩ ইনিংসে কোনো ৫০+ ইনিংস নেই আইয়ারের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা প্রথম দুই টেস্টে ৪ ইনিংস খেলে ১০৪ রান সংগ্রহ করেছেন। ব্যক্তিগত কারণে এই সিরিজে নেই ভিরাট কোহলি। আইয়ারের উপর দায়িত্ব থাকে কিছুটা বেশি। কিন্তু সেই পজিশনে ব্যাট হাতে কাঙ্ক্ষিত কিছুই দিতে পারছেন না এই ব্যাটার।

চ্যাপেল তাই লিখেছেন,

“ভারত শক্তিশালী দল, তাঁদের একজন ভালো নেতা আছে, রোহিত শর্মা। রবীন্দ্র জাদেজা ও লোকেশ রাহুল চোট থেকে ফেরায় তাঁদের শক্তিমত্তা আরো বৃদ্ধি পাবে। তবে সিরিজের বাকি অংশে ভিরাট কোহলির না ফেরাটা একটা ক্ষতি। আশা করছি, নির্বাচকরা এখন আইয়ারের ব্যাটিং সামর্থ্যকে অতিমূল্যায়ন করা বন্ধ করবে। এবং কুলদীপ যাদবের উইকেট নেওয়ার সামর্থ্যকে মূল্যায়ন করতে শিখবে।”

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে চোটে থাকার পর রাহুল ও জাদেজা ১৭ সদস্যের স্কোয়াডে ফিরেছে। মূলত দ্বিতীয় ও তৃতীয় টেস্টের মাঝে ১০ দিনের বিরতিতে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া কাজে লেগেছে।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি, রাজকোটে তৃতীয় টেস্টে মুখোমুখি হবে ভারত ও ইংল্যান্ড।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বিপিএল মাতাতে আসছেন অ্যালেক্স হেলস

Read Next

কেন ৭ নম্বর জার্সি নিয়েছেন, জানালেন ধোনি

Total
0
Share