ইতিহাস রচনা করল কেপটাউন টেস্ট, সিরিজ সমতায় শেষ করল ভারত

ভারত

কেপটাউন টেস্টে অবশেষে জয়ে ভিড়ল ভারত। প্রথম দিনে ২৩ উইকেটের পতনে বেশ নাজেহাল ছিল সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচটি। তবে আজ প্রোটিয়াদের দেওয়া মাত্র ৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা টপকাতে খুব বেশি অসুবিধায় পড়তে হয়নি ভারতকে। যদিও ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল দলটি। তবে শেষপর্যন্ত ৭ উইকেটের জয় নিয়ে সিরিজ ১-১ ড্র করার সৌভাগ্য অর্জন করল ভারত।

ইতিহাসে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি সবচেয়ে অল্প সময়ে শেষ হলো। পুরো ম্যাচ শেষ হতে মাত্র ১০৭ ওভার বা ৬৪২ বল খরচ হয়েছে। এর আগে ১৯৩২ সালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ইনিংস ও ৭২ রানে জয়ী হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। যে ম্যাচে বল খরচ হয়েছিল ৬৫৬ টি। এবার কেপটাউনে ভেঙে গেল সব রেকর্ড।

গতকাল ৩ উইকেট ৬২ রানে ব্যাটিং করছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। আজ সেখান থেকেই দ্বিতীয় দিন শুরু হয়। তবে নিউল্যান্ডসের এই উইকেট যে ব্যাটারদের জন্য কতটা কঠিন হয়ে উঠেছে, সেই প্রমাণ আজ আবারও মিলল প্রোটিয়াদের ব্যাটিং ধরন দেখে। অপরাজিত এইডেন মার্করাম কেবল নিজের অবস্থান ধরে রেখে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে গেলেন। জনপ্রিয় ক্রিকেট পরিসংখ্যান-ভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকভিজের মতে, সেটি অনন্য কিছুর দৃষ্টান্ত রেখেছিল।

মার্করাম যখন ফিরেছেন দলের রান তখন ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬২। এই ব্যাটারের ফেরা পড়েছে ১০৩ বলে ১০৬ রান করে। যেখানে ১৭ টি চার ও ২ টি ছয়ের মার ছিল। এমন এক ইনিংস খেলার পর সতীর্থদের থেকে সাহায্য পাননি তিনি। কেবল বিদায়ী ডিন এলগারের ব্যাটে আসা ১২ রান হয়ে রইল ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর। দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হয়ে যায় ১৭৬ রানে।

জাসপ্রীত বুমরাহ সর্বোচ্চ ৬ উইকেট তোলেন।

এমতাবস্থায় ভারতের জন্য লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৭৯ রানের। সফরকারী দল হিসেবে সিরিজ ড্র করার এমন সুযোগ কে-ই বা নষ্ট করে! ভারতও তা করেনি। দ্রুত রান তাড়ায় যখন ইয়াশাসভি জাইসাওয়াল ফিরলেন দলীয় রান তখন ৪৪ আর জাইসাওয়াল ৬ টি চারের মারে করলেন ২৮ রান। আরেক ওপেনার ও অধিনায়ক রোহিত শর্মা ম্যাচ জিতিয়ে বের হয়েছেন। মাঝে শুবমান গিল ও ভিরাট কোহলি যথাক্রমে ১০ ও ১২ রানের ইনিংস খেলেছেন। শ্রেয়াস আইয়ার অপরাজিত ছিলেন ৪ রান করে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

স্টাম্পিং আউট ও কনকাশন সাব নিয়ে আইসিসির নয়া সিদ্ধান্ত

Read Next

হারানো ক্যাপ খুঁজে পেয়ে বেজায় খুশি ওয়ার্নার

Total
0
Share