অ্যারন ফিঞ্চ টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার শেষ করতে চলেছেন

ফিঞ্চ

অস্ট্রেলিয়ার সাদা বলের ক্রিকেটে অ্যারন ফিঞ্চের নাম উচ্চারিত হয়েছে বহুদিন। অবসর নেওয়ার পরেও তাকে স্মরণ করায় কোনো কমতি রাখত না অজি সমর্থকরা। এবার অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানতে যাচ্ছেন ফিঞ্চ। আগামী ১৩ জানুয়ারি মেলবোর্ন স্টার্সের বিপক্ষে ম্যাচের মধ্য দিয়ে তাকে বিদায় দেওয়ার পরিকল্পনা করছে দলের ম্যানেজমেন্ট। রেনেগেডসের হয়ে সাম্প্রতিক ম্যাচগুলো খেলা হচ্ছে না এই ক্রিকেটারের।

বিবিএলের ১৩তম আসর চলছে। মেলবোর্ন রেনেগেডস দলের হয়ে প্রথমদিন থেকেই খেলছেন ফিঞ্চ। চুক্তি ছিল আগামী ১৪তম আসর পর্যন্ত। তবে ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে আজ (বৃহস্পতিবার) হোবার্ট হারিকেনসের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগে তার সরে যাওয়ার ঘোষণা সম্পর্কে জানা যায়।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৪৪ টি ওডিআই ম্যাচ, ১০৩ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ফিঞ্চ। ১৩১ টি ম্যাচে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। রেনেগেডসের হয়ে সর্বোচ্চ রান এই ব্যাটারের, পাশাপাশি সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডও তার কাছে। ১০৬ ম্যাচে রান করেছেন ৩৩১১। পুরো বিবিএলের হিসেবে তা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, ক্রিস লিনের ৩৬৩৮ রানের পর।

আগ্রাসী ব্যাট করার ব্যাপারে পারদর্শী ফিঞ্চ। ১১ আসর খেলে, বিবিএল-২ থেকে বিবিএল-১১ পর্যন্ত, মোট ৭৯ ম্যাচে রেনেগেডসের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। যেখানে বিবিএলের অষ্টম আসরে শিরোপা জয়ের সাক্ষীও হয়েছিলেন তিনি।

ফিঞ্চ বলেন, “সেখানে আসলেই কিছু নিচে যাওয়ার এবং দারুণভাবে উপরে ওঠার ব্যাপার ছিল। আর আমি এই জার্নির পুরোটাই ভালোবেসেছি। বিবিএল টাইটেল জেতার সাথে কোনো কিছুর তুলনা হয় না। সেই মুহুর্তটা আমার কাছে খুবই স্পেশাল এবং যেটা আমি সবসময় মনে রাখব।“

“একটি ক্লাবের হয়ে খেলে আমি ক্যারিয়ার শেষ করছি, এতে গর্বিত বোধ করি।“

বিবিএল এর চলতি আসরে রেনেগেডসের অবস্থান প্রায় পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে। কাগজে-কলমে ইতোমধ্যে প্রতিযোগিতার দৌড় থেকে ছিটকে গেছে দলটি। এ পর্যন্ত খেলা ৭ ম্যাচের মধ্যে মাত্র এক ম্যাচে জয়ের সুযোগ হয়েছে মেলবোর্ন রেনেগেডসের।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আইসিসির বর্ষসেরা নারী ইমার্জিং ক্রিকেটারের শর্টলিস্টে মারুফা

Read Next

আফগানদের ব্যাটিং কোচ অ্যান্ড্রু জর্জ পুটিক

Total
0
Share