টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের প্রথম জয়

লিটন

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে শেষ ম্যাচটি জিতে বাংলাদেশ। নেপিয়ারেই এবার জয় দিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু বাংলাদেশের। ওয়ানডের আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে সফল শান্তর দল। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি জয়। ওপেনার লিটন দাসের হার-না-মানা ৪২ রানের ইনিংসে বাংলাদেশ জিতল ৫ উইকেটে। লিটনের সাথে শেষবেলায় জুটি গড়ে শেখ মেহেদী ১৬ বলে করেন ১৯ রান। আর তাতেই বাংলাদেশের ঐতিহাসিক জয়। অলরাউন্ড পারফর্ম্যান্সে ম্যাচ সেরার পুরষ্কার উঠল মেহেদীর হাতে।

চারদিনের ব্যবধানে পরপর দুই সংস্করণের ক্রিকেটে বাংলাদেশ দল প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডকে তাদের মাটিতে হারানোর স্বাদ পেল। ওয়ানডের পর এবার ২০ ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশ পেল দারুণ এক জয়। ১০তম ম্যাচে এসে ধরা দিল রোমাঞ্চকর জয়, কিউইদের মাঠে এর আগে খেলা ৯ ম্যাচের ১টিতেও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। 

১৩৫ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার রনি তালুকদারকে হারায় বাংলাদেশ। অ্যাডাম মিলনের বলে ক্যাচ তুলে ফেরার আগে ১ ছক্কায় ৭ বলে তার রান ১০। এরপর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত এসে সঙ্গ দেওয়ার চেষ্টা করেন লিটন দাসকে। দারুণ শুরু করেও শান্ত ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ। ১৯ রান নিয়ে ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। 

এরপর অবশ্য সৌম্য সরকার এসে রানের গতি বাড়িয়ে দেন। ফর্মে থাকা সৌম্য এদিনও হয়ে ওঠছিলেন ভয়ংকর। ২ চার ও ১ ছক্কায় তার নামের পাশে যখন ২২ রান, তখন বেন সিয়ার্সের দারুণ এক ডেলিভারি ভাঙে সৌম্যর স্টাম্প। একপ্রকার হতাশ হয়েই সৌম্যকে বিদায় নিতে হয়। আর এটিই নিউজিল্যান্ডের মাঠে সিয়ার্সের প্রথম আন্তর্জাতিক উইকেট। 

উইকেটে থিতু হয়ে থাকা ওপেনার লিটন দাস এরপর দলের সংগ্রহ এগিয়ে নিয়ে যান তাওহীদ হৃদয়কে নিয়ে। হৃদয়ের ইনিংস ধীর গতির হলেও দলের জয়ের জন্য ছিল বেশ দরকারি। ১৮ বলে ১৯ রান করা হৃদয়কে ফিরিয়ে কিউদের ব্রেকথ্রু এনে দেন অধিনায়ক স্যান্টনার। শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা আফিফ হোসেন শেষপর্যন্ত ৬ বলের মাথায় ক্যাচ তুলে ফিরে যান প্যাভিলিয়নে, পাননি ১ রানের বেশি। পরপর দুই ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে ফেলা বাংলাদেশকে দারুণ সব স্ট্রোক্সে জয়ের পথে নিয়ে যান লিটন দাস।

শেষবেলায় লিটনকে এসে সঙ্গ দেন শেখ মেহেদী। ২৫ বলে তাদের ৪০ রানের জুটিতে সহজেই ৮ বল বাকি থাকতে বাংলাদেশের ৫ উইকেটের জয়। ওপেনার লিটন শুরু থেকে অপরাজিত ছিলেন শেষ পর্যন্ত। লিটনের অপরাজিত ৪২ রানের ইনিংস সাজানো ২ চার ও ১ ছক্কায়, ৩৬ বলে।  

এর আগে নেপিয়ারে বাংলাদেশের বোলারদের তোপে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অল্পতেই থামে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে জমা করল ১৩৪ রান। ম্যাকলিন পার্কে এদিন টস জিতে আগে বোলিং বেছে নেয় বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। শুরুর ওভারেই শেখ মেহেদী বোল্ড করলেন টিম সেইফার্টকে। পরের ওভারে শরিফুল ইসলামের জোড়া শিকার।

বাংলাদেশের পক্ষে ৩টি উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম। ২টি করে নিয়েছেন শেখ মেহেদী ও মুস্তাফিজুর রহমান। অভিষেক টি-টোয়েন্টি খেলতে নামা তানজিম হাসান সাকিব এবং লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন নেন ১টি করে উইকেট।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

কিউইদের অল্পতেই আটকে দিল মেহেদী, শরিফুলরা

Read Next

তামিমকে পেছনে ফেললেন লিটন দাস

Total
0
Share