অস্ট্রেলিয়াকে টেস্ট হারিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করল ভারতের মেয়েরা

অস্ট্রেলিয়াকে টেস্ট হারিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করল ভারতের মেয়েরা

মুম্বাইয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করল ভারত। অস্ট্রেলিয়া নারী দলের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ৮ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে ভারতের মেয়েরা। এর আগে লাল বলের ক্রিকেটে মুখোমুখি ১০ দেখায়, ভারত জেতেনি একবারও। সেই অধরা জয় শেষপর্যন্ত দেখা দিল নিজেদের মাটিতে।

১৯৮৪ সালের পর ভারতের মাটিতে কোনো টেস্ট ম্যাচ খেলেনি ভারত-অস্ট্রেলিয়া নারী দল। অবশেষে এই ডিসেম্বরে সেই ধারা কেটেছে। মুখোমুখি ১০ দেখায়, অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা জিতেছে ৪ ম্যাচে, বাকি ৬ ম্যাচ হয়েছে ড্র। এতদিন ভারতের পক্ষে কোনো জয় ছিল না অজিদের বিপক্ষে।

ডিসেম্বরের ২১ তারিখ শুরু হওয়া টেস্টে, মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস জয় লাভ করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় অধিনায়ক অ্যালিসা হিলি।

প্রথম ইনিংসে ব্যাটে খুব একটা ভালো করে উঠতে পারেনি দলটি। ওপেনিং ব্যাটার বেন মুনির ব্যাটে আসা ৪০ রান আস্থা জুগিয়েছে। ইনিংস সর্বোচ্চ রান করেছেন তাহিলা ম্যাকগ্রা ৫০ (৫৬)। হিলির ব্যাটে আসে ৩৮ টি রান। কিম গার্থ ৭১ বল খেলে অপরাজিত ছিলেন ২৮ রানে।

অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংসে ২১৯ রান করে গুটিয়ে যায়।

ভারতের বোলারদের পক্ষে পূজা ভাস্ত্রাকর ৪ উইকেট এবং স্নেহ রানা ৩ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন।

ভারত ব্যাট করতে নেমে বড় সংগ্রহ দাঁড় করানোর দিকে এগোতে থাকে। ওপেনিং ব্যাটার শেফালি ভার্মা ও স্মৃতি মান্দানা– দু’জনেই ভালো করেন। যথাক্রমে ৪০ ও ৭৪ রানে ফিরেছেন।

ফিফটি এসেছে রিচা ঘোষ, জেমিমাহ রড্রিগুয়েজ ও দীপ্তি শর্মার ব্যাটে। তিন ব্যাটার যথাক্রমে ফিরেছেন ৫২, ৭৩ ও ৭৮ রানে।

ভাস্ত্রাকর ৪ উইকেট তোলার পর, ব্যাটেও ১২৬ বল খেলে ৪৭ রান সংগ্রহ করে হাফ সেঞ্চুরি করার আগেই বিদায় নেন। বাকি সব ব্যাটার ফিরেছিলেন এক ডিজিটে।

প্রথম ইনিংস শেষে ভারত ৪০৬ রানে সব উইকেট হারিয়ে থামে।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে অ্যাশলেই গার্ডনার সর্বোচ্চ ৪ উইকেট সংগ্রহ করেন

পরের ইনিংসে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। ১৮৭ রানের লিড থাকে ভারতের জন্য। এই ইনিংসেও অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ রান আসে ম্যাকগ্রার ব্যাট থেকে, ৭৩। এছাড়াও এলিসা প্যারি ৪৫ রান, মুনি ৩৩ রান, হিলি ৩২ রান, অ্যানাবেল সাদারল্যান্ডও ১০১ বল খেলে ২৭ রান সংগ্রহ করেন।

ভারতের দেওয়া লিড ভেঙে খুব বেশি সুবিধা করে উঠতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। মাত্র ৭৪ রান বেশি করে। এবার অজি মেয়েরা গুটিয়ে যায় ২৬১ রানে।

এই ইনিংসে স্নেহ রানা সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন।

৭৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে আজ, চতুর্থ দিনে মধ্যাহ্ন বিরতির আগে আগে ব্যাট করতে নামে ভারত। দলীয় ৪ রানে ওপেনার শেফালী ফিরেছেন। তবে স্মৃতি ঠিকই ক্রিজে ছিলেন শেষপর্যন্ত। মাঝে রিচা ১৩ রান যোগ করে ফিরেছেন। তবে স্মৃতি ও জেমিমাহ মিলে ১৮.৪ ওভারে ভারতের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছেড়েছে।

স্মৃতি অপরাজিত ছিলেন ৬১ বলে ৩৮ রানে, অন্যদিকে জেমিমাহ ১৫ বলে ১২ রান করে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নাইম শেখ-অঙ্কনদের আক্ষেপ, নাইম ইসলামের ফিফটি

Read Next

পাকিস্তানের পেস অ্যা’টা’ক নিয়ে দুশ্চিন্তায় ওয়াকার ইউনুস

Total
0
Share