ধোনির দেওয়া মন্ত্র গেঁথে আছে হোপের চিন্তায়

শাই হোপ

শাই হোপ নিজের সামর্থ্যের জায়গাটুকু আবারও প্রমাণ করে দেখালেন। স্যাম কারান এর চার বলে ৩ ছয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজ দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়লেন হোপ। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৪ উইকেটের জয় নিয়ে সিরিজ জয়ের অপেক্ষায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ওডিআই ক্রিকেটে ১৬তম সেঞ্চুরি করলেন হোপ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গতকালের ইনিংসে বল মোকাবিলা করেছেন ৮৩ টি, রান করেছেন ১০৯, অপরাজিত। ইংল্যান্ডের দেওয়া ৩২৬ রানের লক্ষ্যমাত্রা মোকাবিলা করতে যেয়ে উইন্ডিজ অধিনায়কের ব্যাটে চড়েই সাফল্য এসেছে।

ম্যাচ শেষে হোপ বলেন,

“অনেক বেশি বেশি পরিচিত একজন, মহেন্দ্র সিং ধোনি– আমাদের বেশ আগে কথাবার্তা হয়েছিল। সে বলেছিল, তুমি যতটুকু চিন্তা করো, তারচেয়ে বেশি সময় তোমার হাতে থাকে।”

“আমি যখন থেকে ওডিআই ক্রিকেট খেলছি, এই একটা ব্যাপার আমার ভেতর বছর ধরে গেঁথে আছে।”

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর হাউস চ্যানেলের সাথে আলাপকালে হোপ আরও বলেন,

“মাঠের যে মাত্রা ছিল এবং সেখানে বাতাসের ব্যাপার মিলিয়ে আমি ভেবেছিলাম, এখানে নির্দিষ্ট ওভার লক্ষ্য করাই সবচেয়ে ভালো হবে। আমরা জানতাম যে, অন্য প্রান্ত থেকে রান করা কঠিন হবে, বিশেষ করে বাতাসের বিপরীত দিক থেকে।”

এ বছরের শুরুতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওডিআই সংস্করণে অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন হোপ। যদিও বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্যর্থ ছিল দলটি, তবে অধিনায়ক তাঁর দায়িত্ব ও ব্যাটে রান– দুটোই খুব ভালোভাবে পালন করে গেছেন।

ওপেনিং পজিশন থেকে নেমে গেছেন চার নম্বরে। সেখানেও ব্যাটিং গড় ও স্ট্রাইকরেট মিলিয়ে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১১তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ৫০০০ ওডিআই রানের মাইলফলক অর্জন করেছেন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওডিআই সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিততে পেরে দারুণ খুশি উইন্ডিজ অধিনায়ক। যেকোনো অবস্থা থেকেই ম্যাচ জেতার সামর্থ্য দেখাতে হবে বলেও মনে করেন তিনি।

“বোর্ডে যাই থাকুক না কেন, আমাদের সেটা তাড়া করতে হবে, যদি আপনি খেলা জিততে চান। আমরা শুধু এভাবে জিততে পারি না যে, বোলিং দল হিসেবে ১৬০ অথবা ১৫০ এ কাউকে থামিয়ে দিলাম– আমাদের যেকোনো অবস্থা থেকেই ম্যাচ জিততে হবে। এটাই সেই বিশ্বাস, যা আমাদের ড্রেসিংরুমে প্রয়োজন।”

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ম্যাচের ‘কালপ্রিট’ হওয়ার আশঙ্কা ছিল আর্শদ্বীপের ভাবনায়

Read Next

সাদা বলের অধিনায়ক মার্করাম, বাভুমা কেবল টেস্ট দলে

Total
0
Share