দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশের মেয়েদের প্রথম জয়

বাংলাদেশ নারী 1

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দলকে ১৩ রানে পরাজিত করে ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ নারী দল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মুর্শিদা খাতুন এর অপরাজিত ৬২ রানের উপর ভর করে ১৪৯ রানের সংগ্রহ তোলে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে আন্নেকে বোশ এর ৬৭ রানও বাঁচাতে পারেনি প্রোটিয়াদের। বাংলাদেশের বোলারদের তৈরি করা চাপে উইকেট হারিয়ে পিষ্ট হয়ে যায় প্রতিপক্ষ। বাংলাদেশের পক্ষে স্বর্ণা আক্তার একাই ৫ উইকেট শিকার করেন।

১৫০ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দল। শুরুটা বেশ দুর্দান্ত ছিল তাঁদের। বিশেষ করে ওপেনার আন্নেকে বোশ লম্বা সময় ক্রিজে ছিলেন। প্রথম উইকেট জুটিতে দলটি ৬৯ রান তোলে, ৯.৩ ওভারে।

অধিনায়ক তাজমিন ব্রিটসের উইকেট হারানোর পর, দলীয় ৭২ রানে আরও একটি উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা।

আন্নেকে’র উপর কিছুটা চাপ তৈরি হয়েছিল তখন। সুনে লুস’কে সাথে নিয়ে আন্নেকে মিলে ১৪.৫ ওভারে দলীয় ১০০ রান পাড়ি দেয়। দলীয় ১২৩ রানে ৪৯ বলে ৬৭ রান করা আন্নেকে ফিরে যান স্বর্ণা আক্তারের শিকার হয়ে।

স্বর্ণা পরবর্তীতে আরো ৪ উইকেট নিয়ে, ৫ উইকেট শিকার করে নেন।

আর ওদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটার ডেলমি টাকার ছাড়া বাকিরা ছিলেন আসা ও যাওয়ার মধ্যে। ১ ও ০ রানের এই মিছিলে শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ২৪ রান। যেখানে ১০ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় প্রোটিয়ারা।

শেষ ওভারে স্বর্ণা দুই উইকেট নিয়ে পাঁচ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করে নেন। বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে নেয় ১৩ রানে।

এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ দল। শামীমা সুলতানা ও মুর্শিদা খাতুন প্রোটিয়া বোলারদের বেশ শক্তভাবেই মোকাবিলা করছিল। দলীয় ৪৪ রানে প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। যেখানে শামীমা ফিরে যান ২৪ বলে ২৪ রান করে।

তবে মুর্শিদা একপাশ আগলে ছিলেন যত্ন নিয়ে। এবার সোবহানা মুস্তারীকে সাথে নিয়ে ছুটতে থাকেন তিনি। দলের শত রান রান পেরোনোর আগেই এলিজ-মারি মার্ক্স এর ডেলিভারিতে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে মুস্তারীকে ফিরতে হয় ১৬ রান করে।

মুর্শিদা এবার অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতিকে সাথে নিয়ে দলীয় শত রান ছাড়িয়ে যান। জ্যোতির ব্যাটেও রান উঠতে থাকে, আসতে থাকে বাউন্ডারি।

এই দুই ব্যাটার মিলে বাকি ওভার পাড়ি দিয়ে দলীয় রান ১৪৯ এ নিয়ে যান।

মুর্শিদা অপরাজিত ছিলেন ৫৯ বলে ৬২ রানে। অন্যদিকে জ্যোতি অপরাজিত ছিলেন ২১ বলে ৩৪ রানে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ভারতীয় ক্রিকেটে আইপিএলের প্রভাব ব্যাখ্যা করলেন জিতেশ শর্মা

Read Next

আগামী বছরের আইপিএলে দেখা যাবে না আর্চারকে

Total
0
Share