মুমিনুলের চাওয়া, কিউইদের ৪০০ রানের টার্গেট দেওয়া

মুমিনুল হক ১ 1

বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে যে তিনটি উইকেট পড়েছে, তারমধ্যে দুইটি রানআউটের কবলে পড়ে। তবুও বড় লিডের পথে, লক্ষ্যমাত্রার পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। সেখানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন অধিনায়ক নিজেই। সঙ্গ দিচ্ছেন মুশফিকুর রহিম।

আগের দিনে ২৬৬ রানে ৮ উইকেটে থাকা নিউজিল্যান্ড দল আজ ৩১৭ রান পর্যন্ত তুলে নেয়। সেটা দেখে অবশ্য একটা খুশি হয়নি স্বাগতিক দল। কিউইদের হাতে থাকে ৭ রানের লিড।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং শুরু করার পর দলীয় ২৩ রানে প্রথম উইকেট। দলীয় ২৬ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে। এই ধাক্কা কাটানোর দায়িত্ব কাঁধে নেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক।

বাংলাদেশের রানের গতিও বাড়তে থাকে। দলীয় ১১৬ রানে মাহমুদুল হাসান জয়ের পর ইনিংসের দ্বিতীয় রানআউটের শিকার হন মুমিনুল হক, ৪০ করেই নিতে হয় বিদায়।

পরের যাত্রায় সেঞ্চুরি আসে শান্তর ব্যাটে, ১৯২ বলে। সাথে মুশফিকুর রহিমও ব্যাট চালিয়ে যান। দুজন মিলে চমৎকার এক জুটি গড়ে বাংলাদেশের রান ২০০ ছাড়িয়ে নেন।

তৃতীয় দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে মুমিনুল হক দলের লক্ষ্যমাত্রা ছুড়ে দেওয়া প্রসঙ্গে বললেন,

“এটা বলাটা খুব কঠিন। আমার কাছে এখনও মনে হচ্ছে উইকেট ভালো। কত রান নিরাপদ এটা বলা অনেক কঠিন। ৪০০-ও হতে পারে, সাড়ে ৩০০ ও হতে পারে। কালকের উপর নির্ভর করে। কাল চতুর্থ দিন, অন্যরকম আচরণ করতে পারে। চারশ হলে ঠিক আছে…”

চার’শ রানের আশাও রাখছেন মুমিনুল লক্ষ্যমাত্রা যত বড় করা যায় তত মঙ্গল। সিলেটের পিচের আচরণ বদলাতে সময় নেয় না। এই বাঁহাতি ব্যাটার মনে করছেন, এই ম্যাচের রেজাল্ট আসবে।

“রেজাল্ট হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। নরমাল ক্রিকেট খেললেই ভালো। যত পারা যায় ওদের দিক থেক গেম নিয়ে আসতে হবে। টেস্ট ক্রিকেটটাই এমন। ধৈর্য ধরে বল করতে হবে। ব্যাটিংয়ে স্বাভাবিক ব্যাটিং করতে হবে।”

তৃতীয় দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২১২ রানে অবস্থান করছে বাংলাদেশ দল, লিডের খাতায় ২০৫ রান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সিলেটে নিয়ম ভাঙলেন ফিলিপস, বাংলাদেশের অভিযোগ

Read Next

মুমিনুলের ‘অলরাউন্ডার’ হয়ে ওঠা গল্পের লেখক শান্ত

Total
0
Share