‘আঙ্কেল পার্সি’ লঙ্কানদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে

পার্সি আবেসেকেরা
Vinkmag ad

শ্রীলঙ্কার ‘মাসকট’ ও ‘সুপারফ্যান’ পার্সি আবেসেকারা, ভালোবাসে যাকে ডাকা হয় ‘আঙ্কেল পার্সি’ নামে পরিচিত, ৮৭ বছর বয়সে আজ মারা গেছেন। পার্সি পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট ম্যাচে ছিলেন, তবে ১৯৯৬ বিশ্বকাপের সময় তিনি বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। বিশেষ করে যখন ফাইনালে শ্রীলঙ্কার জয়ের পর তাকে লাহোরে মাঠের চারপাশে শ্রীলঙ্কার পতাকা উড়াতে দেখা যায়।

ছন্দময় ইংরেজি-ভাষার ‘চ্যান্ট’ এর জন্য তিনি বিখ্যাত, এবং খেলোয়াড়দের সাথে মজাদার বিভিন্ন বিষয় আদান-প্রদানের জন্য, যা শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার এবং বিদেশি উভয়ের সাথেই করতেন। পার্সি বিশেষ করে শ্রীলঙ্কার মাঠে প্রিয় ছিলেন, তবে শ্রীলঙ্কা যেখানেই সফর করতেন, বিশেষ করে টেস্ট ম্যাচের সময় তাকে প্রায়শই দেখা যেত। তিনি ট্রাভেলিং-সুপারফ্যানদের প্রথম প্রজন্মের মধ্যে ছিলেন।

তিনি দশকের পর দশক ধরে অনেক শীর্ষ ক্রিকেটারের প্রশংসা পেয়েছেন। ১৯৮০-এর দশকে, কিউই গ্রেট মার্টিন ক্রো খেলার প্রতি পার্সির আবেগের জন্য তাঁকে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ ট্রফি দিয়েছিলেন। এবং তারপরে এই বছরের এশিয়া কাপে ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা তাঁর বাড়িতে যান।

যদিও পার্সি একজন পাঁড় শ্রীলঙ্কার সমর্থক ছিলেন, তবুও তিনি প্রায়শই তার নিজের দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে ঠাট্টা করতেন, বিশেষ করে যখন তারা সীমানার কাছে ফিল্ডিংয়ে ভুল করত।

সাম্প্রতিক সময়ে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট পার্সিকে বিভিন্নভাবে অনুদান প্রদান করেছে। দীর্ঘদিন অসুস্থ থেকে হাসপাতালে থাকার পর পার্সি আজ মৃত্যুবরণ করেছেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিবদের পাশে আসিফ আকবর

Read Next

বিশ্বকাপের মাঝেই ইনজামামের পদত্যাগ

Total
0
Share