ওয়াল্লেলাগের ফাই-ফার, আসালাঙ্কার চারে অল্পতেই শেষ ভারত

ভারত শ্রীলঙ্কা 1

শ্রীলঙ্কান স্পিনারদের সামনে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হলো ভারতীয় ব্যাটারদের। ওয়েল্লালাগে একাই নিলেন ৫ উইকেট। প্রথমে রোহিত, গিল, কোহলি– এরপর বিরতি দিয়ে, রাহুল ও পান্ডিয়া। পরের ধাপে এলেন আসালাঙ্কা। একাই তুলে নিলেন প্রতিপক্ষের চার চারটি উইকেট। বাকি এক উইকেট পুরলেন থিকশানা। ৪৯.১ ওভারে ২১৩ রানে গুটিয়ে যায় ভারত৷

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় রোহিত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামের মাঠে আগেরদিন পাকিস্তানের বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছিল ভারত। ব্যাটিং ছিল দুর্দান্ত। রোহিত শর্মা ও শুবমান গিল মিলে সেখান থেকেই শুরু করলেন। যদিও প্রথমে কিছুটা থিতু হয়ে নিতে হয়েছে। উদ্ধোধনী দুই ব্যাটারের জুটিতে আসে ৮০ রান। পাওয়ারপ্লে’র পর প্রথম ওভার করতে আসেন দুনিথ ওয়েল্লালাগে, সেই ওভারেই ‘ব্রেকথ্রু’, ১৯ রানে ফিরে যান গিল।

কোহলি ও রোহিতের উইকেট তুলতেও সময় নেননি ওয়েল্লালাগে। দুজনকে ফিরিয়েছেন এক রানের ব্যবধানে। লোকেশ রাহুল ও ইশান কিষান মিলে পরবর্তী জুটি গড়ে তোলেন। ৬৩ রানের জুটিতে আবারও ভাঙন ধরায় এই স্পিনার। আগের ম্যাচে শতক করা রাহুল এই ম্যাচে ফেরেন ৩৯ রান করে।

ইশানের সাথে তখন নতুন ব্যাটার হার্দিক পান্ডিয়া। এবার ওয়েল্লালাগে নিজের ভূমিকা পাল্টালেন। চারিথ আসালাঙ্কার বলে দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিলেন। ইশান ফিরলেন ৬১ বলে ৩৩ রান করে। ইশানের ফেরার পর দলের খাতায় আর ২ রান যোগ হয়, সেসময় ওয়েল্লালাগের শেষ ওভারের শেষ বলে পান্ডিয়া এজ হন। শ্রীলঙ্কা রিভিউ নেয়। আল্ট্রা-এজ জানিয়ে দেয়, ক্যারিয়ারের প্রথম ৫ উইকেট পাচ্ছেন ২০ বছর বয়সী তরুণ স্পিনার।

পরের ব্যাটাররা আর তেমন কোনো সুবিধা করতে পারেননি। আসালাঙ্কার ডেলিভারিতে রবীন্দ্র জাদেজা ১৯ বল খেলে ৪ রান, জাসপ্রীত বুমরাহ ১২ বল খেলে ৫ রান, কুলদীপ যাদব ১ বলে খেলে ০ রানে ফিরেছেন। ভারতের তখন ৯ উইকেট হারিয়ে ১৮৬ রান। ক্রিজে ছিলেন একাদশে ফেরা অক্ষর প্যাটেল, সাথে মোহাম্মদ সিরাজ। রান তেমন তুলতে পারেননি। যতটুকু সময় ছিলেন, লঙ্কান স্পিনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছেন। দুইশো পেরোতে সাহায্য করলেন বটে। মাঝে বৃষ্টির বাঁধাও ছিল কিছু সময়। মাহিশ থিকশানার বলে অক্ষর ফিরলেন ৩৬ বলে ২৬ রান করে। সিরাজ অন্যপ্রান্তে ১৯ বলে ৫ রান করে রইলেন অপরাজিত।

বোলারদের পক্ষে, দুনিথ ওয়েল্লালাগে বল করেছেন ১০ ওভার, রান দিয়েছেন ৪০, উইকেট নিয়েছেন ৫ টি। চারিথ আসালাঙ্কা ৯ ওভার বল করে, ১৮ রান দিয়ে, ৪ উইকেট তুলেছেন। বাকি এক উইকেট নিয়েছেন মাহিশ থিকশানা।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দুনিথ ওয়াল্লেলাগে: ভারতের প্রথম চারজন যার পকেটে!

Read Next

মুরালির আশা, বাংলাদেশেও মুক্তি পাবে তার সিনেমা

Total
0
Share