কাউন্টিতে তৈরি হয়েছে ভারতীয় একাদশ!

ভারত কাউন্টি

আইপিএল ব্যতীত ভারতীয় খেলোয়াড়দের বাইরের কোন দেশে সাধারণত খেলতে দেখা যায় না। বাইরের কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের কথা যদি বলা যায়, ভারতীয় খেলোয়াড়দের আপনি দেখবেননা। তবে ইংল্যান্ডের কাউন্টিতে ভারতীয়দের মাঝেসাজেই দেখা পড়ে। পুরনো খেলোয়াড় থেকে শুরু করে নতুনদেরও চোখে পড়বে। এবার তো ভারতের একাদশই তৈরি হয়ে গেছে, বর্তমানে ভারতীয় খেলোয়াড়দের আধিক্য সেখানে এতই বেশি।

জনপ্রিয় ক্রিকেট পত্রিকা ‘উইজডেন’ এক প্রতিবেদন বের করেছে। যেখানে চলতি মৌসুমে ইংল্যান্ডের কাউন্টিতে খেলছে এমন ভারতীয়দের নিয়ে একটি একাদশ তৈরি করেছে। একাদশে অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অভিজ্ঞ চেতেশ্বর পুজারাকে। উইকেটরক্ষক পাওয়া যাচ্ছিল না। সেই দায়িত্ব পাচ্ছেন পৃথ্বী শ, যার অনূর্ধ্ব-১৯ এ এই অভিজ্ঞতা ছিল। তবে একাদশটি মানসম্পন্ন হতে বাধ্য।

সাই সুদর্শন

এখনো বাইশে পা দেননি। এই বছরে হওয়া আইপিএলে খেলেছেন ৪৭ বলে ৯৬ রানের অসাধারণ এক ইনিংস। লিস্ট-এ ক্যারিয়ারে আছে ৫ টি শতক। সুযোগ পেয়েছেন সারে’র হয়ে কাউন্টিতে খেলার।

পৃথ্বী শ (উইকেটরক্ষক)

পৃথ্বী বর্তমানে ভারতের কোন দলে নেই। কাউন্টিতে নর্থাম্পশায়ারের পক্ষে খেলে যাচ্ছেন। চোটে পড়েছেন যদিও, তবে তাঁর আগে ৪ ইনিংসে ৪২৯ রান তুলেছেন এই ওপেনার। এক ওয়ানডে ম্যাচে খেলেছেন ২৪৪ রানের অতিমানবীয় ইনিংস।

চেতেশ্বর পুজারা (অধিনায়ক)

১০ ইনিংসে ৬০০ রান করেছেন সাসেক্সের হয়ে। ছিলেন অধিনায়কের দায়িত্বেও। ৩ সেঞ্চুরি ছিল সেসব রানে। এর আগে ২০২১-২০২২ সময়ে তাঁর রান ছিল ১০০০। বর্তমান ভারতের টেস্ট দলের বাইরে রয়েছেন এই ক্রিকেটার। সুযোগ পাননি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে।

করুন নায়ার

ইংল্যান্ডের সাথে সেই অমূল্য ৩০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন। সেরা হয়ে আছেন সেই ইনিংস দিয়ে। এরপর তাঁর ক্যারিয়ার আর আগায়নি। প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন শেষ জুনে। সম্প্রতি নর্থাম্পশায়ারে যোগ দিয়েছেন ৩১ বছর বয়সী এই ভারতীয়। স্যাম হোয়াটম্যানের বদলি হিসেবে, ৩ টি চ্যাম্পিয়নশিপ গেম খেলতে।

আজিঙ্কা রাহানে

রঞ্জি ট্রফি ও আইপিএলে ভাল করে টেস্ট দলে ফিরেছেন রাহানে। খেলেছেন ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। ফাইনালের কারণে বিলম্বিত হওয়ায় লিচেস্টারশায়ারের সাথে চুক্তি বাতিল করতে হয়েছিল এই ব্যাটসম্যানের। পরবর্তীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও সহ-অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

জয়ন্ত যাদব

ইংল্যান্ডের সাথে যে সিরিজে নায়ার ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন, সেই একই সিরিজের ভিন্ন এক ম্যাচে জয়ন্তের ব্যাট থেকে এসেছিল সেঞ্চুরি। ৯ নম্বরে ব্যাট করে ভিরাট কোহলির সাথে করেছিলেন ২৪১ রানের জুটি। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত মুখ এই অফ স্পিন অলরাউন্ডার। ২০২২ সালে মিডলসেক্সে ছিলেন, এবারও ৪ টি চ্যাম্পিয়নশিপ গেমের জন্য একই দলে যুক্ত হয়েছেন।

নবদ্বীপ সাইনি

জুলাই, ২০২১ এর পর থেকে সাইনি আর ভারতের হয়ে খেলেননি। জুনে যখন কাউন্টি অভিষেক হলো, প্রথম বলেই উইকেট তুলে নিয়েছিলেন এই বোলার। পরবর্তীতে ভারতের উইন্ডিজ সফরের দলে অবশ্য ডাক পেয়েছিলেন। খেলা হয়নি একাদশে।

উমেশ যাদব

তিনি ভারতের বেশিরভাগ টেস্ট স্কোয়াডে রিজার্ভ হিসেবে ভ্রমণ করেন। ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারতের কোনো টেস্ট না থাকায়, উমেশ এসেক্সের হয়ে ডগ ব্রেসওয়েলের জায়গায় খেলতে প্রস্তুত। গত মৌসুমে মিডলসেক্সের অংশ ছিলেন তিনি।

জয়দেব উনাদকাট

১২ বছর পর টেস্ট দলে ফিরে ভারতের হয়ে উইন্ডিজ সফর করেছিলেন উনাদকাট। আগস্টে সাসেক্সের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এই বোলার। বাকি চার ম্যাচের শেষ ম্যাচটি মিস হতে পারে উনাদকাটের জন্য, কারণ তিনি ইরানি কাপে সৌরাষ্ট্রকে নেতৃত্ব দিতে পারেন।

যুজবেন্দ্র চাহাল

সাদা বলের ক্রিকেটে লেগ স্পিনে চাহাল ভারতের ভরসার নাম। বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন। কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে কেন্ট- এর হয়ে দেখা যাবে তাঁকে, ৩ ম্যাচের জন্য। ২০০৯ সালে অভিষেক হওয়ার পির মাত্র ৩৩ টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন চাহাল।

আর্শদ্বীপ সিং

জুনে কেন্ট- এর হয়ে কাউন্টিতে অভিষেক হয়েছে ভারতের এই বাঁহাতি পেসারের। উইন্ডিজের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলতে ও আয়ারল্যান্ড সিরিজ খেলতে ফিরে আসার আগে কাউন্টিতে বেশ কিছু লেট সুইং দেখা গেছে আর্শদ্বীপের।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নাইম শেখ একজন ভালো ক্রিকেটার: আকরাম খান

Read Next

এনামুল বিজয়ের ৯০০ শব্দের আবেগঘন স্ট্যাটাস

Total
0
Share