সাকিবের কাঠগড়ায় চার ব্যাটার আর শুরুর বোলিং

সাকিব 3

শ্রীলঙ্কার কাছে বাংলাদেশের আরও এক হার। আগের ম্যাচেও টাইগারদের ডুবিয়েছিল ব্যাটিং অর্ডার, এই ম্যাচেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। শেষপর্যন্ত হারতে হল ২১ রানে। ফের ব্যাটিং ব্যর্থতাই ভোগাল বাংলাদেশকে। অধিনায়ক সাকিবও আঙুল তুলেছেন টপ অর্ডারের চার ব্যাটারের দিকে, এরমধ্যে আছেন তিনি নিজেও। টস জিতে বোলিং বেছে নেওয়ার পর বোলারদের থেকে আশানরূপ পারফর্ম্যান্স না পাওয়ায় অধিনায়ক অসন্তোষ। 

লাহোর থেকে কলম্বোয় ফিরেও সুপার ফোরের ভাগ্য সহায় হয়নি বাংলাদেশের। তিন ম্যাচের মধ্যে বাংলাদেশ প্রথম দুই ম্যাচেই পরাস্ত হল। শ্রীলঙ্কার কাছে ২১ রানে হেরে কার্যত ছিটকে গেল বাংলাদেশ। লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুটা অবশ্য দারুণ করেছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ২৮ রানের মিরাজের বিদায়ে যেন উইকেটের পতন শুরু। একের পর এক ডট খেলে মোহাম্মদ নাইম শেখ উইকেট হারান বাজে শটে। ২১ রানের ইনিংস খেলতে গিয়ে তিনি খরচ করেন ৪৬ বল।

এই ম্য়াচেও ব্যর্থ হলেন তিনে নামা লিটন দাস, পাননি ১৫ রানের বেশি। অধিনায়ক সাকিবের দ্রুত বিদায়ে আরও বিপাকে পড়ে যায় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ম্যাচ শেষে বলেন,

‘আমরা ভালো বোলিং করিনি। বোলারের জন্য উইকেটে সাহায্য ছিল কিন্তু আমরা উইকেট পাইনি, কৃতিত্ব শ্রীলঙ্কার। তাড়া করতে আমাদের ৮০-১০০ রানের পার্টনারশিপ দরকার ছিল। আমাদের শীর্ষ চার ব্যাটার থেকে পর্যাপ্ত রান আসেনি এবং আমরা শুরুতে ভালো বোলিং করতে পারিনি।’

ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে বোলারদের শুরু ও টপ অর্ডারের ব্যর্থতাকে সাকিব দেখছেন বড় করে। তবে ৮২ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলা তাওহীদ হৃদয়কে প্রশংসায় ভাসাতে ভুল করেননি সাকিব।

‘[হৃদয়] সে দারুণ ব্যাটিং করেছে। সত্যিই ভাল। সে এখানে এলপিএল খেলেছে তাই সে আত্মবিশ্বাস এনেছে। সে সত্যিই ভাল খেলেছে। যদি সে আর একটু ব্যাট করতে পারত, তবে সবসময়ই অনেক যদি এবং কিন্তু থাকে। কিন্তু শ্রীলঙ্কা আরও ভালো খেলেছে যার কারণে তারা জিতেছে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার কাছে আরও একবার হারল বাংলাদেশ

Read Next

হৃদয়ের জন্য আফসোস করছেন অশ্বিন

Total
0
Share