সিপিএলে ব্রাভোর দশ বলে ছয় ছক্কা

match report 9
Vinkmag ad

৩৬ বলে ত্রিনবাগোর লক্ষ্য ছিলো ৮৬। আর সেটা শেষ হলো মাত্র ৩২ বলে। সিপিএলের আজকের বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ও ড্যারেন ব্রাভোর দানবীয় ব্যাটিয়ে ভর করে এসটি কিটসের বিপক্ষে ৮ উইকেটের জয় পায় ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স।

24Bravos
জয়ের পর ছোট ভাই ড্যারেন ব্রাভোকে সাথে নিয়ে উল্লাসে মাতেন ডোয়াইন ব্রাভো

৮৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে নাইট রাইডার্স ৫ ওভার ২ বলে তুলে নেয় জয়। তবে খেলা শুরুর আগে এই স্কোর মোটেই সহজ ছিল না। ক্রিস গেইল আজ ফিরেছেন সেই পুরনো রূপে। এসটি কিটসের হয়ে খেলেছেন ৪৭ বলে ৯৩ রানের এক চোখ ধাঁধানো ইনিংস। বৃষ্টির কবলে পড়ে কিটস ১৩ ওভারের বেশি ব্যাট করতে পারেনি। কিন্তু এই ১৩ ওভারে তারা তাদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৬২ রান। কিটসের ব্যাটসম্যানরা এই সময়ে ওভারপ্রতি রান তুলেছে ১২.৪৬। দলের হয়ে লুইস করেন ১৪ বলে ৩৯ রান। এদিন নাইট রাইডার্সের কোন বোলারই সুবিধা করতে পারেননি।

বৃষ্টি যখন থামে তখন সময় পেরিয়ে গেছে অনেকটা। তাই ডি-এল মেথডে রাইডার্সের লক্ষ্য নির্ধারণ হয় ৬ ওভারে ৮৬ রান। ছোট সংখ্যা অনেক সময় ভয়ের কারণ হয়, কারণ নাইট রাইডার্সদের জিততে হলে রান তুলতে হবে ১৪.৩৩ হারে। শুরুতেই নারিন আর কলিন মুনরোর উইকেট হারিয়ে একটু চাপে পড়ে নাইট রাইডার্স। কিন্তু ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ও ড্যারেন ব্রাভো সেই ভয়কে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছেন। ম্যাচ জেতার সাথে সিপিএলের রেকর্ডের অংশ হয়ে গেছেন।

ব্রাভো অপরাজিত থাকেন ১০ বলে ৩৮ রান করে ও ম্যাককালাম ১৪ বল খেলে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন। তাদের খেলা বলগুলো ছিল এমন, ৬ ৬ ৬ ০ ১ ১ ৬ ১ ৬ ৪ ৬ ৬ ৬। ৩৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট পতনের পর উইকেটে আসেন ব্রাভো, বদ্রীকে দিয়ে শুরু তার খেলা প্রথম তিন বলেই তিন ছয়। এরপর নবীর ওভারে নেন ২৩ রান। জেতার জন্য শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল দশ রান, জনাথন কার্টারকে উড়িয়ে খেলা শেষ করেন এই জুটি। ব্রাভো তার খেলা দশ বলের মধ্যে ছয় বার উড়িয়ে বাউন্ডারি ছাড়া করেছেন বল।  ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স জয় পায় ৮ উইকেটের। এই জয়ের ফলে ৮ ম্যাচে ৭ জয় নিয়ে সবার উপরে নাইট রাইডার্স আর এসটি কিটসের অবস্থান দুইয়ে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জ্যামাইকা পৌঁছে গেছেন মাহমুদউল্লাহ

Read Next

ফিট ধোনিকে নিয়ে বিশ্বকাপে যেতে চান কোহলি

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share