জয়ের সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের রানের পাহাড়

জাকির জয়
Vinkmag ad

কলম্বোতে ইমার্জিং এশিয়া কাপে বাংলাদেশের ডু-অর-ডাই ম্যাচ। জিতলেই পেয়ে যাবে সেমির টিকিট, হারলে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায়। এমন সমীকরণের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ স্কোরবোর্ডে জমা করে ৩০৮ রান। শুরুর বিপর্যয় কাটিয়ে জাকির, জয়ের ব্যাটে জোড়া ফিফটি। জাকির ফিফটির পর ফিরে গেলেও শতক ছুঁয়েছেন মাহমুদুল হাসান জয়। সৌম্য ২ রানের জন্য পাননি ফিফটির দেখা। শেষদিকে শেখ মেহেদী হাসানের ক্যামিও!

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৩০৯ রানের টার্গেট দিয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। শতক হাঁকিয়ে পরের বলেই ফিরে যান মাহমুদুল হাসান জয়। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬২ রানের ইনিংস আসে জাকির হাসানের ব্যাট থেকে। ৪২ বলে ৪৮ রান করে ফিরলেন সৌম্য সরকার। শেখ মেহেদী হাসান ১৯ বলে ৩৬ রানের ইনিংসে থাকেন অপরাজিত। 

কলম্বোর পি সারা ওভাল ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ ইমার্জিং অধিনায়ক সাইফ হাসান। শুরুর ওভারেই ব্যাটে ঝড় তুলেন ওপেনার নাইম শেখ। ৩ বাউন্ডারিতে ৬ বলে করেন ১২ রান। কিন্তু দারুণ শুরুর পরও ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ নাইম। ব্যক্তিগত ১৮ রানে বিদায় নেন ক্যাচ তুলে। আগের দুই ম্যাচে দাপট দেখানো তানজিদ হাসান তামিমের ব্যাটেও আজ নেই রান। ৯ বলে করেন ৯।

অধিনায়ক সাইফ হাসান পাননি ৪ রানের বেশি। দলীয় ৩৪ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটারকে হারিয়ে ফেলা বাংলাদেশকে এরপর পথ দেখায় জাকির হাসান ও মাহমুদুল হাসান জয়। এই দুই ব্যাটার আফগান বোলারদের পাত্তা না দিয়ে খেলতে থাকেন দারুণ সব স্ট্রোক্স।

ইনিংসের ২৩ তম ওভারের শেষ বলে ইজহারুলহক নাভেদকে ছক্কা হাঁকিয়ে পঞ্চাশ পূর্ণ করেন জাকির। ৫৮ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে জাকিরের ব্যাটে দেখা মিলে গুরুত্বপূর্ণ ফিফটি। পরের ওভারে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে জয়ের অর্ধশতক। এই দুই ব্যাটারের জোড়া ফিফটিতে শুরুর বিপর্যয় সামলে বড় সংগ্রহের পথে এগিয়ে যাচ্ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ফিফটির পর আরও মারমুখী হয়ে ব্যক্তিগত ৬২ রানে ক্যাচ তুলেন জাকির হাসান। সৌম্য সরকার এসেই ব্যাট চালিয়ে খেলতে থাকেন। অপরপ্রান্তে জয়ও আছেন ছন্দে।

সৌম্য সরকার নিশ্চিতভাবেই ছিলেন ফিফটির পথে। কিন্তু পুল খেলতে গিয়ে দুর্ভাগ্যজনকভাবে হয়েছেন ক্যাচ আউটের শিকার। ৪২ বলে ৪৮ রান করে ফিরলেন সৌম্য সরকার। সমান ৩ ছয় ও চারে সাজানো এই ইনিংস। ধুঁকতে থাকা আকবর আলি ১০ বলে ৪ করে নিয়েছেন বিদায়। তবে দারুণ ব্যাটিংয়ে জয় ছুটে চলেন শতকের পথে। ইনিংসের ৪৬ তম ওভারের শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। কিন্তু পরের ওভারের শুরুতেই শট খেলতে গিয়ে হন ক্যাচ। ১২টি চার ও ২ ছক্কায় বরাবর একশো রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন জয়।

এরপর ব্যাট হাতে ক্যামিও ইনিংস খেললেন শেখ মেহেদী হাসান। তাকে সঙ্গ দেন রাকিবুল হাসান। শেষের ওভারগুলোতে চার-ছয়ের বন্যা বইয়ে দেন মেহেদী। আর তাতেই বাংলাদেশ টপকায় তিনশো রানের গণ্ডি। মেহেদী ৩৬ ও রাকিবুলের ১৫ রানের ইনিংসে বাংলাদেশ পায় ৩০৮ রানের সংগ্রহ। 

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জোড়া ফিফটিতে বড় সংগ্রহের পথে বাংলাদেশ

Read Next

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফিরলেন অ্যান্ডারসন

Total
0
Share